আজঃ ৮ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - রাত ৩:৪৫

সিলেটে কোটা প্রথা সংস্কারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি ও স্মারকলিপি প্রদান

Published: মার্চ ১৪, ২০১৮ - ৩:২৬ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক :: সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা প্রথা সংস্কারের দাবিতে ‘কোটা সংস্কার আন্দোলন, সিলেট’ এর উদ্যোগে ‘বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’ এর দাবিসমূহ আদায়ের লক্ষ্যে শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (১৪ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে র‌্যালি সহকারে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে এ অবস্থান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মসূচি শেষে সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা সিলেট জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর কোটা সংস্কারের পক্ষে ৫ দফা দাবির স্মারকলিপি প্রদান করেন। জেলা প্রশাসকের পক্ষে কোটা প্রথা সংস্কারের স্মারকলিপি গ্রহণ করেন সিলেট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার সুনন্দা রায়।

দাবিসমূহ হল, কোটা ব্যবস্থাকে সংস্কার করে ৫৬ শতাংশ থেকে ১০ শতাংশে কমিয়ে আনতে হবে, কোটায় যোগ্য প্রার্থী পাওয়া না গেলে শূন্য থাকা পদসমূহে মেধায় নিয়োগ দিতে হবে, কোটায় কোন ধরনের বিশেষ নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া যাবে না, চাকরির নিয়োগ পরীক্ষায় কোটা সুবিধা একাধিকবার ব্যবহার করা যাবে না, সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে সবার জন্য অভিন্ন কাট মার্কস ও বয়সসীমা নির্ধারণ করতে হবে, কোটায় যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া না গেলে শূন্য থাকা পদসমূহে মেধায় নিয়োগ দিতে হবে।

স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট এম.সি কলেজ, সিলেট মদন মোহন কলেজসহ সিলেটের বিভিন্ন প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক :: সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা প্রথা সংস্কারের দাবিতে ‘কোটা সংস্কার আন্দোলন, সিলেট’ এর উদ্যোগে ‘বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’ এর দাবিসমূহ আদায়ের লক্ষ্যে শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (১৪ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে র‌্যালি সহকারে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে এ অবস্থান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মসূচি শেষে সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা সিলেট জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর কোটা সংস্কারের পক্ষে ৫ দফা দাবির স্মারকলিপি প্রদান করেন। জেলা প্রশাসকের পক্ষে কোটা প্রথা সংস্কারের স্মারকলিপি গ্রহণ করেন সিলেট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার সুনন্দা রায়।

দাবিসমূহ হল, কোটা ব্যবস্থাকে সংস্কার করে ৫৬ শতাংশ থেকে ১০ শতাংশে কমিয়ে আনতে হবে, কোটায় যোগ্য প্রার্থী পাওয়া না গেলে শূন্য থাকা পদসমূহে মেধায় নিয়োগ দিতে হবে, কোটায় কোন ধরনের বিশেষ নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া যাবে না, চাকরির নিয়োগ পরীক্ষায় কোটা সুবিধা একাধিকবার ব্যবহার করা যাবে না, সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে সবার জন্য অভিন্ন কাট মার্কস ও বয়সসীমা নির্ধারণ করতে হবে, কোটায় যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া না গেলে শূন্য থাকা পদসমূহে মেধায় নিয়োগ দিতে হবে।

স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট এম.সি কলেজ, সিলেট মদন মোহন কলেজসহ সিলেটের বিভিন্ন প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর