আজঃ ৪ঠা পৌষ ১৪২৫ - ১৮ই ডিসেম্বর ২০১৮ - রাত ২:৪১

মরদেহ দেশে আনতে আরও সময় লাগবে: রাষ্ট্রদূত

Published: মার্চ ১৪, ২০১৮ - ৫:২২ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক :: নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলার উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় নিহতদের মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে আরও কয়েকদিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন নেপালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাশফি বিনতে শামস।

বুধবার নেপালের একটি হাসপাতালে হতাহতদের দেখতে গিয়ে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘ফরেনসিক বিভাগের ময়নাতদন্ত শেষ করতে আরও চার দিন লাগবে। তারপর তারা স্বজনদের তালিকার সঙ্গে মিলিয়ে তথ্য নিশ্চিত করে মরদেহের পরিচয় নিশ্চিত করবেন। মরদেহ ফেরত পাঠাতে পরে হয়ত আরও ২-১ দিন বেশি লাগতে পারে।’

এছাড়া মারাত্মকভাবে পুড়ে যাওয়া মরদেহ শনাক্ত করার জন্য ডিএনএ পরীক্ষার প্রয়োজন হলে সেক্ষেত্রে সেই মরদেহগুলো দেশে ফিরিয়ে আনতে আরও অন্তত তিন সপ্তাহ সময় লাগবে বলেও জানান তিনি।

লাশ ফেরত নেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পর্কে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বিস্তারিত জানানো হবে উল্লেখ করে এ সময় তিনি হতাহতদের স্বজনদের কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশ দূতাবাসে উপস্থিত থাকতে বলেন।

এদিকে নিহতদের মরদেহ তাদের স্বজনদের দেখতে না দেওয়ার কারণ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা কয়েকটি মৃতদেহ দেখেছি। এসব মৃতদেহের প্রায় ৮০ ভাগই পুড়ে গেছে। তাদেরকে আইডেন্টিফাই করা কঠিন হবে। লাশগুলোর অবস্থা ভয়ঙ্কর। তাই সেগুলো দেখতে দেওয়া হচ্ছে না।’

প্রসঙ্গত, গত সোমবার বিকেলে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ইউএস-বাংলার একটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়। এ দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক :: নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলার উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় নিহতদের মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে আরও কয়েকদিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন নেপালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাশফি বিনতে শামস।

বুধবার নেপালের একটি হাসপাতালে হতাহতদের দেখতে গিয়ে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘ফরেনসিক বিভাগের ময়নাতদন্ত শেষ করতে আরও চার দিন লাগবে। তারপর তারা স্বজনদের তালিকার সঙ্গে মিলিয়ে তথ্য নিশ্চিত করে মরদেহের পরিচয় নিশ্চিত করবেন। মরদেহ ফেরত পাঠাতে পরে হয়ত আরও ২-১ দিন বেশি লাগতে পারে।’

এছাড়া মারাত্মকভাবে পুড়ে যাওয়া মরদেহ শনাক্ত করার জন্য ডিএনএ পরীক্ষার প্রয়োজন হলে সেক্ষেত্রে সেই মরদেহগুলো দেশে ফিরিয়ে আনতে আরও অন্তত তিন সপ্তাহ সময় লাগবে বলেও জানান তিনি।

লাশ ফেরত নেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পর্কে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বিস্তারিত জানানো হবে উল্লেখ করে এ সময় তিনি হতাহতদের স্বজনদের কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশ দূতাবাসে উপস্থিত থাকতে বলেন।

এদিকে নিহতদের মরদেহ তাদের স্বজনদের দেখতে না দেওয়ার কারণ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা কয়েকটি মৃতদেহ দেখেছি। এসব মৃতদেহের প্রায় ৮০ ভাগই পুড়ে গেছে। তাদেরকে আইডেন্টিফাই করা কঠিন হবে। লাশগুলোর অবস্থা ভয়ঙ্কর। তাই সেগুলো দেখতে দেওয়া হচ্ছে না।’

প্রসঙ্গত, গত সোমবার বিকেলে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ইউএস-বাংলার একটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়। এ দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর