আজঃ ১লা কার্তিক ১৪২৫ - ১৬ই অক্টোবর ২০১৮ - রাত ১১:৪৩

বাঁচামরার লড়াইয়ে ফের মুখোমুখি বাংলাদেশ-আফগানিস্তান

Published: সেপ্টে ২২, ২০১৮ - ৬:৫৬ অপরাহ্ণ

প্রতিদিন স্পোর্টস ডেস্ক:সুপার ফোরে প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান উভয় দলই হেরেছে। তাই এই দু’দলের জন্যই দ্বিতীয় ম্যাচ খুব গুরুত্বপূর্ণ, বলা যায় বাঁচামরার লড়াই। সেই লড়াইয়ে এবার আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। রবিবার বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৫টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

পাকিস্তানের কাছে সুপার ফোর ম্যাচে হেরেছে আফগানিস্তান। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচ তাদের আত্মবিশ্বাসের দিকে কিছুটা এগিয়ে রাখতে পারে। কারণ শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ দু’দলকে হারিয়ে তারা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে আসে সুপার ফোরে। বিশেষ করে শেষ দুই ম্যাচে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা যেভাবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে তা এই ম্যাচেও কাজে লাগাতে চাইবে আফগানরা। প্রথম পাওয়ার প্লে-তে মোহাম্মদ শাহজাদ ও ইহসানুল্লাহ পাওয়ার প্লে-তে ভালো খেলেন। সেই সুযোগ তারা কাজে লাগাতে চাইবেন। তাদের মিডল অর্ডারই মূল কাজটি করে দেয়। আর শেষ ১০ ওভারে স্কোর যতোটা বাড়ানো যায় সেই চেষ্টা তারা করবেন। শেষ দুই ম্যাচে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ১০ ওভারে যথাক্রমে ৯৭ ও ৮৭ রান করে দলটি।

বোলিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখছে তাদের তিন স্পিনার মুজিব উর রহমান, রাশিদ খান ও মোহাম্মদ নবী। এই ম্যাচেও তারা থাকবেন বোলারদের জন্য আতঙ্ক হিসেবে। বাংলাদেশের জন্য এই ম্যাচও চ্যালেঞ্জিং। কারণ ইনজুরির কারণে দলের বাইরে আছেন দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ওপেনার তামিম ইকবাল। তাই ওপেনিংয়ে খেলছেন লিটন দাস ও নাজমুল হাসান শান্ত। গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব থাকছে মোসাদ্দেক হোসেনের কাঁধে। নির্বাচকদের তালিকায় আছেন সৌম্য সরকার ও ইমরুল কায়েস। তবে মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ থাকায় কিছুটা স্বস্তি থাকছে।

এই ম্যাচ নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেছেন, আমরা পরপর দুটি ম্যাচে ব্যর্থ হয়েছি। দ্রুত উইকেট পতনে সবাই উদ্বিগ্ন। আমরা সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে ওই অবস্থা থেকে উত্তোরণের চেষ্টা করেছি, কিন্তু সম্ভব হয়নি। আমাদের অবশ্য আফগানিস্তান এবং ভারতের বিপক্ষে বিশ্বমানের বোলারদের বিপক্ষে খেলতে হয়েছে। আমাদেরকে অবশ্যই ভালো কিছু পার্টনারশিপ গড়ে তুলতে হবে। কেননা আমরা প্রথম ৩০ ওভারে সেভাবে লড়তে পারিনি।

Facebook Comments

প্রতিদিন স্পোর্টস ডেস্ক:সুপার ফোরে প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান উভয় দলই হেরেছে। তাই এই দু’দলের জন্যই দ্বিতীয় ম্যাচ খুব গুরুত্বপূর্ণ, বলা যায় বাঁচামরার লড়াই। সেই লড়াইয়ে এবার আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। রবিবার বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৫টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

পাকিস্তানের কাছে সুপার ফোর ম্যাচে হেরেছে আফগানিস্তান। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচ তাদের আত্মবিশ্বাসের দিকে কিছুটা এগিয়ে রাখতে পারে। কারণ শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ দু’দলকে হারিয়ে তারা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে আসে সুপার ফোরে। বিশেষ করে শেষ দুই ম্যাচে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা যেভাবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে তা এই ম্যাচেও কাজে লাগাতে চাইবে আফগানরা। প্রথম পাওয়ার প্লে-তে মোহাম্মদ শাহজাদ ও ইহসানুল্লাহ পাওয়ার প্লে-তে ভালো খেলেন। সেই সুযোগ তারা কাজে লাগাতে চাইবেন। তাদের মিডল অর্ডারই মূল কাজটি করে দেয়। আর শেষ ১০ ওভারে স্কোর যতোটা বাড়ানো যায় সেই চেষ্টা তারা করবেন। শেষ দুই ম্যাচে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ১০ ওভারে যথাক্রমে ৯৭ ও ৮৭ রান করে দলটি।

বোলিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখছে তাদের তিন স্পিনার মুজিব উর রহমান, রাশিদ খান ও মোহাম্মদ নবী। এই ম্যাচেও তারা থাকবেন বোলারদের জন্য আতঙ্ক হিসেবে। বাংলাদেশের জন্য এই ম্যাচও চ্যালেঞ্জিং। কারণ ইনজুরির কারণে দলের বাইরে আছেন দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ওপেনার তামিম ইকবাল। তাই ওপেনিংয়ে খেলছেন লিটন দাস ও নাজমুল হাসান শান্ত। গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব থাকছে মোসাদ্দেক হোসেনের কাঁধে। নির্বাচকদের তালিকায় আছেন সৌম্য সরকার ও ইমরুল কায়েস। তবে মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ থাকায় কিছুটা স্বস্তি থাকছে।

এই ম্যাচ নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেছেন, আমরা পরপর দুটি ম্যাচে ব্যর্থ হয়েছি। দ্রুত উইকেট পতনে সবাই উদ্বিগ্ন। আমরা সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে ওই অবস্থা থেকে উত্তোরণের চেষ্টা করেছি, কিন্তু সম্ভব হয়নি। আমাদের অবশ্য আফগানিস্তান এবং ভারতের বিপক্ষে বিশ্বমানের বোলারদের বিপক্ষে খেলতে হয়েছে। আমাদেরকে অবশ্যই ভালো কিছু পার্টনারশিপ গড়ে তুলতে হবে। কেননা আমরা প্রথম ৩০ ওভারে সেভাবে লড়তে পারিনি।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর