আজঃ ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - রাত ৯:৪৩

৬ দফা দাবীতে সিসিকের অফিসার কর্মচারীদের অবস্থান কর্মসূচী পালিত

Published: মার্চ ১৩, ২০১৮ - ৪:১২ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক :: ৬ দফা দাবীতে বাংলাদেশ সিটি ও পৌর কর্মচারী ফেডারেশনের বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার সকাল ১১টা থেকে সিটি কর্পোরেশনের গেইটে অবস্থান কর্মসুচী পালন করেছে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের অফিসার এসোশিয়শনের কর্মকর্তা ও কর্মচারী সংসদের সদস্যবৃন্দ।

তাদের ৬ দফা দাবীগুলো হলো- অবিলম্বে সকল সিটি ও পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পেনশন প্রথা চালু করতে হবে, সরকারি কোষাগার থেকে বেতন ভাতা প্রদান করতে হবে, সিটি ও পৌর বিধিমালা ৫৩(২), ৫৪(২),৬৮ ধারাসহ সকল কালো আইন বাতিল করে যুগোপযোগী বিধিমালা প্রনয়ণ করতে হবে, মাষ্টাররুল কর্মকর্তা/কর্মচারীদের চাকরী স্থায়ীকরণ করতে হবে, নিয়োগক্ষেত্রে কর্মমকর্তা/কর্মচারী সন্তানদের পোষ্য কোঠায় নিয়োগ দিতে হবে, ব্লক পোস্টে যোগ্যতা অনুযায়ী পদোন্নতি ও সিলেকশন গ্রেড প্রদানসহ অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা/কর্মচারীদের প্রযোজ্য উৎসব ভাতা প্রদান করতে হবে।

অফিসার এশোসিয়েশনের আহবায়ক রুহুল আলমের সভাপতিত্বে ও কর্মচারী সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবীর উদ্দিন চৌধুরী পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন- কর্মচারী সংসদের সভাপতি আব্দুল বাসিত, সাধারন সম্পাদক আখতার সিদ্দিকী বাবলু, অফিসার এসোশিয়েশনের যুগ্ম আহবায়ক চন্দন দাস, হানিফুর রহমানসহ অফিসার এসোশিয়েশন এবং কর্মচারি সংসদের সকল কর্মকর্তা এবং কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অবস্থান কর্মসুচীতে জানানো হয়- ৬ দফা দাবী আদায়ের লক্ষে আগামী ১৯ মার্চ ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কলম বিরতি পালন করা হবে। আগামী ২৮মার্চ স্থানীয় সরকার মন্ত্রানালয়ের মন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান এবং আগামী ৫ এপ্রিল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক :: ৬ দফা দাবীতে বাংলাদেশ সিটি ও পৌর কর্মচারী ফেডারেশনের বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার সকাল ১১টা থেকে সিটি কর্পোরেশনের গেইটে অবস্থান কর্মসুচী পালন করেছে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের অফিসার এসোশিয়শনের কর্মকর্তা ও কর্মচারী সংসদের সদস্যবৃন্দ।

তাদের ৬ দফা দাবীগুলো হলো- অবিলম্বে সকল সিটি ও পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পেনশন প্রথা চালু করতে হবে, সরকারি কোষাগার থেকে বেতন ভাতা প্রদান করতে হবে, সিটি ও পৌর বিধিমালা ৫৩(২), ৫৪(২),৬৮ ধারাসহ সকল কালো আইন বাতিল করে যুগোপযোগী বিধিমালা প্রনয়ণ করতে হবে, মাষ্টাররুল কর্মকর্তা/কর্মচারীদের চাকরী স্থায়ীকরণ করতে হবে, নিয়োগক্ষেত্রে কর্মমকর্তা/কর্মচারী সন্তানদের পোষ্য কোঠায় নিয়োগ দিতে হবে, ব্লক পোস্টে যোগ্যতা অনুযায়ী পদোন্নতি ও সিলেকশন গ্রেড প্রদানসহ অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা/কর্মচারীদের প্রযোজ্য উৎসব ভাতা প্রদান করতে হবে।

অফিসার এশোসিয়েশনের আহবায়ক রুহুল আলমের সভাপতিত্বে ও কর্মচারী সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবীর উদ্দিন চৌধুরী পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন- কর্মচারী সংসদের সভাপতি আব্দুল বাসিত, সাধারন সম্পাদক আখতার সিদ্দিকী বাবলু, অফিসার এসোশিয়েশনের যুগ্ম আহবায়ক চন্দন দাস, হানিফুর রহমানসহ অফিসার এসোশিয়েশন এবং কর্মচারি সংসদের সকল কর্মকর্তা এবং কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অবস্থান কর্মসুচীতে জানানো হয়- ৬ দফা দাবী আদায়ের লক্ষে আগামী ১৯ মার্চ ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কলম বিরতি পালন করা হবে। আগামী ২৮মার্চ স্থানীয় সরকার মন্ত্রানালয়ের মন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান এবং আগামী ৫ এপ্রিল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর