আজঃ ৪ঠা পৌষ ১৪২৫ - ১৮ই ডিসেম্বর ২০১৮ - রাত ২:৪০

হুমায়ুন রশীদকে সম্মান দিয়ে প্রধানমন্ত্রী সিলেটবাসীকে সম্মানিত করেছেন -মিসবাহ সিরাজ

Published: মার্চ ০১, ২০১৮ - ৭:৫৬ অপরাহ্ণ

প্রতিদিন ডেস্ক::মার্চ মাস আমাদের জন্য ঐতিহাসিক মাস। জাতির পিতা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৭ই মার্চ ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন। ১৮ মিনিটের অলিখিত সেই ভাষণ সারা দুনিয়াকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল। ওই ভাষণ বিশ্বের সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ ভাষণ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে ইউনেস্কো। এছাড়া ২৬শে মার্চ বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন। এই ঐতিহাসিক মাসে আমরা স্মরণ করতে চাই সিলেটের কৃতি সন্তান আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ব্যক্তিত্ব, বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের স্পিকার আলহাজ্ব হুমায়ুন রশিদ চৌধুরীকে; যিনি প্রবাসে থেকেও বাঙালি মুক্তিযোদ্ধাদেরকে সাহায্য করেছিলেন। তাঁকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাধীনতার মরণোত্তর পদক দিয়েছেন। হুমায়ুন রশিদ চৌধুরীকে এই সম্মান দিয়ে প্রধানমন্ত্রী সিলেটবাসীকে সম্মানিত করেছেন। যেদিন পদক তাঁর পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হবে, এর পরদিন শ্রমিকলীগের উদ্যোগে আনন্দ মিছিল করা হবে।

তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে জাতির পিতার সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় প্রতীক নৌকা মার্কাকে বিজয়ী করে ২০২০ সালের জাতির পিতার শততম জন্মবার্ষিকী পালন করতে চাই এবং স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি ২০২১ সালে উদযাপন করতে চাই।’

মহান স্বাধীনতা দিবসের মাস উত্তাল মার্চের প্রথম দিনে জাতীয় শ্রমিকলীগ সিলেট ও মহানগর শাখার উদ্যোগে লাল সবুজ পতাকার মিছিল ও আনন্দ শোভাযাত্রা শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। শোভাযাত্রাটি ঐতিহাসিক রেজিষ্ট্রারী মাঠ থেকে শুরু হয়ে সুরমা পয়েন্ট, কোর্ট পয়েন্ট, জিন্দাবাজার হয়ে চৌহাট্টায় গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অথিতি ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, মহানগর আওয়ামীলীগের দপ্তর সাধারণ সম্পাদক এড: সামসুল ইসলাম, মিছিলে নেতৃত্ব দেন কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগের অন্যতম সহ-সভাপতি ও জেলার সভাপতি প্রকৌশলী এজাজুলহক, মহা নগরের সভাপতি এম শাহরিয়া কবির সেলিম , জেলা সাধারন সম্পাদক শামীম রশীদ চৌধুরী, মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আলম রুমেল, জেলার সহ সভাপতি আব্দুল জলিল, সিরাজুল ইসলাম আব্দুছছত্তার মো হারুন, আজিজুর রহমান, মহানগর শ্রমিকলীগের নেতা জাকারিয়া আলম ঠিপু, গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী, জেলার দপ্তর সম্পাদক দুলন রঞ্জন দেব, প্রচার সম্পাদক প্রকৌশল আনোয়ার হোসেন, অর্থসম্পাদক সুশান্ত দেব, শ্রমিককল্যাণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, ক্রীড়া সম্পাদক শাহ আলম ছুরূক,সিনিয়র সদস্য বিধু ভুষন চক্রবর্তী, জেলার উপদেশটা এস এম আব্দুল হাই পীর, জেলা সেচ্ছ সেবক লীগের সহ সভাপতি মুহিবুল সালাম, ব্যাংক কর্মচারী ফেডারেশন এর সভাপতি মোফাককারুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মজিদ, সদর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ফয়ছল মাহমুদ, সহ সভাপতি মাসুক আহমেদ, দক্ষিন সুরমা উপজেলার সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ ব্যাংক সিবিএ এর সাধারন সম্পাদক আজিজুল হক, সড়ক ও জনপথের সি: সহ সভাপতি রুস্তম খান, সোনালী ব্যাংক এর সাধারণ সম্পাদক খালেদ আহমদ চৌধুরী, মহানগর হকার্স লীগের সভাপতি শফিক মিয়া, সাধারণ সম্পাদকআতিয়ার রহমান, কৃষি ব্যাংকের সভাপতি আছকির মিয়া, সাধারণ সম্পাদক সানুর আলী, জনতা ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক মীর ইয়াকুত আলী দুলাল, সোনালী ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক খালেদ আহমদ চৌধুরী, রূপালী ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, বিশ্বনাথ উপজেলার সভাপতি আমির আলী, সহ সভাপতি তাজির আলী , নির্বাহি সম্পাদক আজাদ আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আরান দেব, গোলাপগঞ্জ উপজেলার সাধারণ সম্পাদক হেলাল আহমেদ, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল করিম খান, সহ সভাপতি সামসুল আসলাম লুকই, বালাগঞ্জ উপজেলার সভাপতি আব্দুল আহাদ, সদর উপজেলার ‘সি’ সহ সভাপতি ডা: শেখ রেজাউল করিম, টি এন্ড টি এর সভাপতি সুদর্শণ ভট্রাচায্য সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক, জেলা হকার্স লীগের সাধারন সম্পাদক রাজ উদ্দিন রাজন, বি এ ডি সি এর সভাপতি দীলিপ কুমার শীল প্রমুখ।

Facebook Comments

প্রতিদিন ডেস্ক::মার্চ মাস আমাদের জন্য ঐতিহাসিক মাস। জাতির পিতা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৭ই মার্চ ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন। ১৮ মিনিটের অলিখিত সেই ভাষণ সারা দুনিয়াকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল। ওই ভাষণ বিশ্বের সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ ভাষণ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে ইউনেস্কো। এছাড়া ২৬শে মার্চ বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন। এই ঐতিহাসিক মাসে আমরা স্মরণ করতে চাই সিলেটের কৃতি সন্তান আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ব্যক্তিত্ব, বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের স্পিকার আলহাজ্ব হুমায়ুন রশিদ চৌধুরীকে; যিনি প্রবাসে থেকেও বাঙালি মুক্তিযোদ্ধাদেরকে সাহায্য করেছিলেন। তাঁকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাধীনতার মরণোত্তর পদক দিয়েছেন। হুমায়ুন রশিদ চৌধুরীকে এই সম্মান দিয়ে প্রধানমন্ত্রী সিলেটবাসীকে সম্মানিত করেছেন। যেদিন পদক তাঁর পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হবে, এর পরদিন শ্রমিকলীগের উদ্যোগে আনন্দ মিছিল করা হবে।

তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে জাতির পিতার সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় প্রতীক নৌকা মার্কাকে বিজয়ী করে ২০২০ সালের জাতির পিতার শততম জন্মবার্ষিকী পালন করতে চাই এবং স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি ২০২১ সালে উদযাপন করতে চাই।’

মহান স্বাধীনতা দিবসের মাস উত্তাল মার্চের প্রথম দিনে জাতীয় শ্রমিকলীগ সিলেট ও মহানগর শাখার উদ্যোগে লাল সবুজ পতাকার মিছিল ও আনন্দ শোভাযাত্রা শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। শোভাযাত্রাটি ঐতিহাসিক রেজিষ্ট্রারী মাঠ থেকে শুরু হয়ে সুরমা পয়েন্ট, কোর্ট পয়েন্ট, জিন্দাবাজার হয়ে চৌহাট্টায় গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অথিতি ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, মহানগর আওয়ামীলীগের দপ্তর সাধারণ সম্পাদক এড: সামসুল ইসলাম, মিছিলে নেতৃত্ব দেন কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগের অন্যতম সহ-সভাপতি ও জেলার সভাপতি প্রকৌশলী এজাজুলহক, মহা নগরের সভাপতি এম শাহরিয়া কবির সেলিম , জেলা সাধারন সম্পাদক শামীম রশীদ চৌধুরী, মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আলম রুমেল, জেলার সহ সভাপতি আব্দুল জলিল, সিরাজুল ইসলাম আব্দুছছত্তার মো হারুন, আজিজুর রহমান, মহানগর শ্রমিকলীগের নেতা জাকারিয়া আলম ঠিপু, গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী, জেলার দপ্তর সম্পাদক দুলন রঞ্জন দেব, প্রচার সম্পাদক প্রকৌশল আনোয়ার হোসেন, অর্থসম্পাদক সুশান্ত দেব, শ্রমিককল্যাণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, ক্রীড়া সম্পাদক শাহ আলম ছুরূক,সিনিয়র সদস্য বিধু ভুষন চক্রবর্তী, জেলার উপদেশটা এস এম আব্দুল হাই পীর, জেলা সেচ্ছ সেবক লীগের সহ সভাপতি মুহিবুল সালাম, ব্যাংক কর্মচারী ফেডারেশন এর সভাপতি মোফাককারুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মজিদ, সদর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ফয়ছল মাহমুদ, সহ সভাপতি মাসুক আহমেদ, দক্ষিন সুরমা উপজেলার সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ ব্যাংক সিবিএ এর সাধারন সম্পাদক আজিজুল হক, সড়ক ও জনপথের সি: সহ সভাপতি রুস্তম খান, সোনালী ব্যাংক এর সাধারণ সম্পাদক খালেদ আহমদ চৌধুরী, মহানগর হকার্স লীগের সভাপতি শফিক মিয়া, সাধারণ সম্পাদকআতিয়ার রহমান, কৃষি ব্যাংকের সভাপতি আছকির মিয়া, সাধারণ সম্পাদক সানুর আলী, জনতা ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক মীর ইয়াকুত আলী দুলাল, সোনালী ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক খালেদ আহমদ চৌধুরী, রূপালী ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, বিশ্বনাথ উপজেলার সভাপতি আমির আলী, সহ সভাপতি তাজির আলী , নির্বাহি সম্পাদক আজাদ আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আরান দেব, গোলাপগঞ্জ উপজেলার সাধারণ সম্পাদক হেলাল আহমেদ, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল করিম খান, সহ সভাপতি সামসুল আসলাম লুকই, বালাগঞ্জ উপজেলার সভাপতি আব্দুল আহাদ, সদর উপজেলার ‘সি’ সহ সভাপতি ডা: শেখ রেজাউল করিম, টি এন্ড টি এর সভাপতি সুদর্শণ ভট্রাচায্য সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক, জেলা হকার্স লীগের সাধারন সম্পাদক রাজ উদ্দিন রাজন, বি এ ডি সি এর সভাপতি দীলিপ কুমার শীল প্রমুখ।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর