আজঃ ৮ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - সকাল ৭:৪২

সুনামগঞ্জে যমুনার তারেক আর ডিবিসির আমিনুল বাঁচালেন সিলেটের এক বৃদ্ধকে

Published: মার্চ ০৪, ২০১৮ - ৩:০৮ অপরাহ্ণ

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা :: সুনামগঞ্জ শহরের জামাইপাড়া এলাকায় রমজান আলী(৬৫) নামের এক বৃদ্ধ শনিবার সকাল থেকে প্রায় সংজ্ঞাহীন অবস্থায় রাস্থায় হয়ে পড়েছিলেন। শত শত পথচারি এ পথে গেলেও তার সাহায্যর্থে কেউ এগিয়ে আসেনি। পরে স্থানীয় এক জন খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে যমুনা টেলিভিশনের সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি মাহমুদুর ররহমান তারেক ও ডিবিসি নিউজ এর সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি আমিনুল ইসলাম তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে চিকিৎসা সহায়তা দিয়েছেন প্রয়াত পৌরসভার মেয়র আয়ূব বখত জগলুলের ছোট ভাই নাদের বখত।

শনিবার সকাল থেকেই জামাইপাড়া এলাকায় মূল সড়কে প্রায় সংজ্ঞাহীন অবস্থায় পড়ে ছিলেন এক বৃদ্ধ। স্থানীয় বাসিন্ধা তাসনিয়া চৌধুরী বিষয়টি যমুনা টেলিভিশনের সাংবাদিক মাহমুদুর রহমান তারেককে জানান। পরে তারেক ও বেসরকারি টেলিভিশন ডিবিসি’র সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম তাকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসাপাতালে চিকিৎসকরা তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট নিয়ে যাবার পরামর্শ দেন। কিন্তু সিলেট নিয়ে যাবার মত অভিভাবক না থাকায় দ্বায়িত্ব নিয়ে দুই সংবাদকর্মী সদর হাসাপাতালেই ভর্তি করান।

বর্তমানে অসহায় বৃদ্ধ হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় পুরুষ ওয়ার্ডের আট নাম্বার বেডে ভর্তি আছেন।

ওই বৃদ্ধের নাম রমজান আলী, বাড়ি সিলেটের কদমতলী এলাকায় বলে জানিয়েছেন।

তবে কিভাবে সিলেট থেকে সুনামগঞ্জ আসলেন জানাতে পারেন নি।

স্থানীয় বাসিন্ধা তাসনিয়া চৌধুরী বলেন, অসহায় বৃদ্ধ মানুষটি শনিবার সকাল থেকেই আমাদের বাসার সামনে পড়ে ছিলেন, পরে তাকে আমার বড় ভাই খাবার খাইয়ে দেন।

বিষয়টি একজন সাংবাদিককে জানালেন, তাকে তারা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। প্রায় সংজ্ঞাহীন পড়ে থাকা মানুষটিকে বাঁচিয়ে দুই সাংবাদিক মানবতার পরিচয় দিয়েছেন।

সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম জানান, রমজান আলী নামের অসহায় মানুষটির চিকিৎসার দ্বায়িত্ব নেয়ার কথা জানিয়েছেন আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী নাদের বখত।

নাদের বখতসহ হাসপাতালে চিকিৎসক, নার্সরা অসহায় মানুষটিকে চিকিৎসায় উদার মনের পরিচয় দিয়েছেন।

Facebook Comments

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা :: সুনামগঞ্জ শহরের জামাইপাড়া এলাকায় রমজান আলী(৬৫) নামের এক বৃদ্ধ শনিবার সকাল থেকে প্রায় সংজ্ঞাহীন অবস্থায় রাস্থায় হয়ে পড়েছিলেন। শত শত পথচারি এ পথে গেলেও তার সাহায্যর্থে কেউ এগিয়ে আসেনি। পরে স্থানীয় এক জন খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে যমুনা টেলিভিশনের সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি মাহমুদুর ররহমান তারেক ও ডিবিসি নিউজ এর সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি আমিনুল ইসলাম তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে চিকিৎসা সহায়তা দিয়েছেন প্রয়াত পৌরসভার মেয়র আয়ূব বখত জগলুলের ছোট ভাই নাদের বখত।

শনিবার সকাল থেকেই জামাইপাড়া এলাকায় মূল সড়কে প্রায় সংজ্ঞাহীন অবস্থায় পড়ে ছিলেন এক বৃদ্ধ। স্থানীয় বাসিন্ধা তাসনিয়া চৌধুরী বিষয়টি যমুনা টেলিভিশনের সাংবাদিক মাহমুদুর রহমান তারেককে জানান। পরে তারেক ও বেসরকারি টেলিভিশন ডিবিসি’র সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম তাকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসাপাতালে চিকিৎসকরা তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট নিয়ে যাবার পরামর্শ দেন। কিন্তু সিলেট নিয়ে যাবার মত অভিভাবক না থাকায় দ্বায়িত্ব নিয়ে দুই সংবাদকর্মী সদর হাসাপাতালেই ভর্তি করান।

বর্তমানে অসহায় বৃদ্ধ হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় পুরুষ ওয়ার্ডের আট নাম্বার বেডে ভর্তি আছেন।

ওই বৃদ্ধের নাম রমজান আলী, বাড়ি সিলেটের কদমতলী এলাকায় বলে জানিয়েছেন।

তবে কিভাবে সিলেট থেকে সুনামগঞ্জ আসলেন জানাতে পারেন নি।

স্থানীয় বাসিন্ধা তাসনিয়া চৌধুরী বলেন, অসহায় বৃদ্ধ মানুষটি শনিবার সকাল থেকেই আমাদের বাসার সামনে পড়ে ছিলেন, পরে তাকে আমার বড় ভাই খাবার খাইয়ে দেন।

বিষয়টি একজন সাংবাদিককে জানালেন, তাকে তারা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। প্রায় সংজ্ঞাহীন পড়ে থাকা মানুষটিকে বাঁচিয়ে দুই সাংবাদিক মানবতার পরিচয় দিয়েছেন।

সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম জানান, রমজান আলী নামের অসহায় মানুষটির চিকিৎসার দ্বায়িত্ব নেয়ার কথা জানিয়েছেন আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী নাদের বখত।

নাদের বখতসহ হাসপাতালে চিকিৎসক, নার্সরা অসহায় মানুষটিকে চিকিৎসায় উদার মনের পরিচয় দিয়েছেন।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর