আজঃ ৪ঠা কার্তিক ১৪২৫ - ১৯শে অক্টোবর ২০১৮ - ভোর ৫:৪২

সিসি ক্যামেরার আওতায় আসছে শাবি

Published: মার্চ ০৫, ২০১৮ - ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ

প্রতিদিন ডেস্ক::নিরাপত্তা বাড়াতে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবি) ক্যাম্পাস ক্লোজড সার্কিট (সিসি) ক্যামেরার আওতায় আনা হচ্ছে। জনপ্রিয় লেখক ও অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনায় ক্যাম্পাসের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এ কথা জানান।

রোববার বিশ্ববিদ্যালেয় সম্মেলন কক্ষে এ বিষয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে শাবি উপাচার্য বলেন, পুরো বিশ্ববিদ্যালয়কে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে। একই সঙ্গে শিগগিরই ক্যাম্পাসের সীমানা প্রাচীর নির্মাণের কাজ শুরু করা হবে।

ড. জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার মর্মাহত। দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাই। ড. জাফর ইকবাল বর্তমানে শঙ্কামুক্ত ও ঝুঁকিমুক্ত রয়েছেন। ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে তার চিকিৎসার জন্য পাচঁ সদস্যের একটি টিম গঠন করা হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোনো শিক্ষার্থী ১৫ দিনের বেশি অনুপস্থিত থাকলে তার সর্ম্পকে খোঁজ-খবর নেওয়া হবে এবং শিক্ষকরা এ ক্ষেত্রে সহয়তা করতে পারেন।

উল্লেখ্য, গত শনিবার বিকেলে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে আহত অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরবর্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে রাতেই তাকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় আনা হয় এবং সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তিনি শঙ্কামুক্ত, তবে পুরোপুরি সুস্থ হতে সময় লাগবে।

Facebook Comments

প্রতিদিন ডেস্ক::নিরাপত্তা বাড়াতে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবি) ক্যাম্পাস ক্লোজড সার্কিট (সিসি) ক্যামেরার আওতায় আনা হচ্ছে। জনপ্রিয় লেখক ও অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনায় ক্যাম্পাসের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এ কথা জানান।

রোববার বিশ্ববিদ্যালেয় সম্মেলন কক্ষে এ বিষয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে শাবি উপাচার্য বলেন, পুরো বিশ্ববিদ্যালয়কে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে। একই সঙ্গে শিগগিরই ক্যাম্পাসের সীমানা প্রাচীর নির্মাণের কাজ শুরু করা হবে।

ড. জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার মর্মাহত। দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাই। ড. জাফর ইকবাল বর্তমানে শঙ্কামুক্ত ও ঝুঁকিমুক্ত রয়েছেন। ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে তার চিকিৎসার জন্য পাচঁ সদস্যের একটি টিম গঠন করা হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোনো শিক্ষার্থী ১৫ দিনের বেশি অনুপস্থিত থাকলে তার সর্ম্পকে খোঁজ-খবর নেওয়া হবে এবং শিক্ষকরা এ ক্ষেত্রে সহয়তা করতে পারেন।

উল্লেখ্য, গত শনিবার বিকেলে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে আহত অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরবর্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে রাতেই তাকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় আনা হয় এবং সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তিনি শঙ্কামুক্ত, তবে পুরোপুরি সুস্থ হতে সময় লাগবে।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর