আজঃ ১লা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ - ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ - রাত ১২:৪৫

সিলেট জেলা পরিষদের উদ্যোগে কৃতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৩৩ লাখ টাকা বৃত্তি প্রদান

Published: সেপ্টে ০৫, ২০১৮ - ৬:২৪ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন :: স্থানীয় সরকার সিলেট বিভাগের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মতিউর রহমান বলেছেন, জ্ঞান গভীরতায় শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারীরাই দেশের সম্পদ। যাদের মাধ্যমে শুধু একটি সমাজ নয় বরং দেশের উন্নয়ন তরান্বিত হয়। তবে এ জন্য শিক্ষার্থীদের সুশিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে নিজেদেরকে একজন সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। তিনি আগামীর সমৃদ্ধ জাতি তথা দেশ গঠনে আজকের শিক্ষার্থীদের কঠোর অধ্যবসায়ের মাধ্যমে নিজেকে দক্ষ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে তোলার আহবান জানান।

তিনি বুধবার দুপুরে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে ২০১৬ ও ১৭ সনের এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি এবং সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের জেলা পরিষদ কর্তৃক বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট লুৎফুর রহমান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিংহ।

জেলা পরিষদের সাঁটলিপিকার এ.কে.এম কামরুজ্জামান মাসুম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ আমাতুজ জাহুরা রওশন জেবীন, সদস্য ইমাম উদ্দিন চৌধুরী, মোঃ মতিউর রহমান, মোঃ নজরুল হোসেন, শিক্ষার্থীদের পক্ষে হিল্লোল জয় চৌধুরী, সানজিদা জোয়ারদার।

শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন সিলেট কালেক্টরেট জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাফিজ মাওলানা শাহ আলম।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শামীম আহমদ, সদস্য সাজনা সুলতানা হক চৌধুরী, মোহাম্মদ শাহানূর, নুরুল ইসলাম, মোঃ আশিক মিয়া, স্যায়িদ আহমদ সুহেদ, মুজিবুর রহমান মুজিব প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, অভিভাবক ও ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ২০১৬ ও ১৭ সালে এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি উত্তীর্ণ ৬৬৬জন কৃতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৩৩ লাখ টাকা বৃত্তি প্রদান করা হয়।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন :: স্থানীয় সরকার সিলেট বিভাগের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মতিউর রহমান বলেছেন, জ্ঞান গভীরতায় শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারীরাই দেশের সম্পদ। যাদের মাধ্যমে শুধু একটি সমাজ নয় বরং দেশের উন্নয়ন তরান্বিত হয়। তবে এ জন্য শিক্ষার্থীদের সুশিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে নিজেদেরকে একজন সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। তিনি আগামীর সমৃদ্ধ জাতি তথা দেশ গঠনে আজকের শিক্ষার্থীদের কঠোর অধ্যবসায়ের মাধ্যমে নিজেকে দক্ষ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে তোলার আহবান জানান।

তিনি বুধবার দুপুরে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে ২০১৬ ও ১৭ সনের এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি এবং সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের জেলা পরিষদ কর্তৃক বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট লুৎফুর রহমান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিংহ।

জেলা পরিষদের সাঁটলিপিকার এ.কে.এম কামরুজ্জামান মাসুম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ আমাতুজ জাহুরা রওশন জেবীন, সদস্য ইমাম উদ্দিন চৌধুরী, মোঃ মতিউর রহমান, মোঃ নজরুল হোসেন, শিক্ষার্থীদের পক্ষে হিল্লোল জয় চৌধুরী, সানজিদা জোয়ারদার।

শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন সিলেট কালেক্টরেট জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাফিজ মাওলানা শাহ আলম।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শামীম আহমদ, সদস্য সাজনা সুলতানা হক চৌধুরী, মোহাম্মদ শাহানূর, নুরুল ইসলাম, মোঃ আশিক মিয়া, স্যায়িদ আহমদ সুহেদ, মুজিবুর রহমান মুজিব প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, অভিভাবক ও ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ২০১৬ ও ১৭ সালে এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি উত্তীর্ণ ৬৬৬জন কৃতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৩৩ লাখ টাকা বৃত্তি প্রদান করা হয়।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর