আজঃ ২৯শে কার্তিক ১৪২৫ - ১৩ই নভেম্বর ২০১৮ - রাত ১১:০৪

শাবি প্রবিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে হাতাহাতি, উত্তেজনা

Published: জানু ২৯, ২০১৬ - ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী র‍্যাগিংকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। বৃহষ্পতিবার দুপুরের দিকে ক্যাম্পাসে এই ঘটনা ঘটে। এতে দু’জন আহত হন। এ নিয়ে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ক্যাম্পাস সুত্র থেকে জানা যায়, বৃহষ্পতিবার দুপুরের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের ১ম বর্ষের এক ছাত্রীকে একই বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থী র‍্যাগ দিচ্ছিলো। এসময় তা দেখতে পেয়ে ব্যাবসা প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী আতিয়ার, মেহেদী ও সালমান বাঁধা দিলে কথা কাটাকাটির সৃষ্টি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এসময় এ দু’জন আহত হন।

উল্লেখ্য র‍্যাগিং এ জড়িত শিক্ষার্থীরা শাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিবন চক্রবর্তী পার্থ গ্রুপের সমর্থক। এছাড়া হামলার শিকার আতিয়ার সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান ও ছাত্রলীগ নেতা উত্তম দাসের সমর্থক। এ নিয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

উভয় গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হলে তারা শাহপরান হলের সামনে অবস্থান গ্রহণ করে।পরবর্তীতে শিক্ষকদের হস্তক্ষেপে বিষয়টির সমাধান করা হয়। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে প্রক্টর অফিসে শিক্ষক ও বিবাদমান গ্রুপের নেতাকর্মীদের নিয়ে মিটিং চলছিলো।

Facebook Comments

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী র‍্যাগিংকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। বৃহষ্পতিবার দুপুরের দিকে ক্যাম্পাসে এই ঘটনা ঘটে। এতে দু’জন আহত হন। এ নিয়ে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ক্যাম্পাস সুত্র থেকে জানা যায়, বৃহষ্পতিবার দুপুরের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের ১ম বর্ষের এক ছাত্রীকে একই বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থী র‍্যাগ দিচ্ছিলো। এসময় তা দেখতে পেয়ে ব্যাবসা প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী আতিয়ার, মেহেদী ও সালমান বাঁধা দিলে কথা কাটাকাটির সৃষ্টি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এসময় এ দু’জন আহত হন।

উল্লেখ্য র‍্যাগিং এ জড়িত শিক্ষার্থীরা শাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিবন চক্রবর্তী পার্থ গ্রুপের সমর্থক। এছাড়া হামলার শিকার আতিয়ার সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান ও ছাত্রলীগ নেতা উত্তম দাসের সমর্থক। এ নিয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

উভয় গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হলে তারা শাহপরান হলের সামনে অবস্থান গ্রহণ করে।পরবর্তীতে শিক্ষকদের হস্তক্ষেপে বিষয়টির সমাধান করা হয়। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে প্রক্টর অফিসে শিক্ষক ও বিবাদমান গ্রুপের নেতাকর্মীদের নিয়ে মিটিং চলছিলো।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর