আজঃ ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - দুপুর ১:৫০

যাত্রা করলো আ’লীগের নির্বাচনী ট্রেন

Published: সেপ্টে ০৮, ২০১৮ - ১১:২০ পূর্বাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন: রেলযাত্রার মাধ্যমে দেশের উত্তরাঞ্চলে নির্বাচনী প্রচারণায় নামলো ক্ষমতাসীন অাওয়ামী লীগ। শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টায় ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে দলটির নেতারা ট্রেনযোগে উত্তরাঞ্চল অভিমুখে রওয়ানা হন। এ যাত্রা শেষ হবে নীলফামারী গিয়ে। সফরের নেতৃত্ব দিচ্ছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের এই সফর উপলক্ষে ঢাকা থেকে নীলফামারীগামী ‘নীলসাগর এক্সপ্রেস’ ট্রেনের একটি বগি রিজার্ভ করা হয়েছে। নির্বাচনী ট্রেনযাত্রার শুরুতে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারের যেসব উন্নয়ন কাজ হয়েছে তা তৃণমূলে পৌঁছে দিতে এবং দলকে শক্তিশালী করতে ট্রেনযাত্রার মাধ্যমে প্রচারাভিযান শুরু করেছে আওয়ামী লীগ।

কাদের বলেন, তৃণমূলের মানুষ যেন বিএনপি-জামায়াতের গুজবের রাজনীতির বিষয়ে সচেতন হয়, সেজন্য দলের এই সাংগঠনিক কার্যক্রম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সফরে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন স্থানে ১১টিরও বেশি পথসভা করার কথা রয়েছে।

দলকে শক্তিশালী করতে ভবিষ্যতে দেশব্যাপী নৌ ও সড়কপথেও সফর করা হবে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, এই যাত্রা আমাদের নির্বাচনী যাত্রা। এই যাত্রা আমাদের অব্যাহত থাকবে। আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর লঞ্চযোগে নির্বাচনী সফর করবো আমরা। এরপর বাই রোডে আমরা চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, কিশোরগঞ্জ যাবো ৷ এই সফরের মাধ্যমে আমরা তৃণমূলে কিছু বার্তা দিতে চাই। সামনের নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতা পূর্ণ হবে। প্রস্তুতি সেভাবেই নিতে হবে। অভ্যন্তরীণ কোনো সমস্যা থাকলে তা নিরসন করা হবে। আমাদের এই যাত্রা তৃণমূল নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করবে।

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী এই সফরে অন্য নেতাদের মধ্যে আছেন দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বি. এম মোজাম্মেল হক, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, উপ-দপ্তর বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন: রেলযাত্রার মাধ্যমে দেশের উত্তরাঞ্চলে নির্বাচনী প্রচারণায় নামলো ক্ষমতাসীন অাওয়ামী লীগ। শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টায় ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে দলটির নেতারা ট্রেনযোগে উত্তরাঞ্চল অভিমুখে রওয়ানা হন। এ যাত্রা শেষ হবে নীলফামারী গিয়ে। সফরের নেতৃত্ব দিচ্ছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের এই সফর উপলক্ষে ঢাকা থেকে নীলফামারীগামী ‘নীলসাগর এক্সপ্রেস’ ট্রেনের একটি বগি রিজার্ভ করা হয়েছে। নির্বাচনী ট্রেনযাত্রার শুরুতে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারের যেসব উন্নয়ন কাজ হয়েছে তা তৃণমূলে পৌঁছে দিতে এবং দলকে শক্তিশালী করতে ট্রেনযাত্রার মাধ্যমে প্রচারাভিযান শুরু করেছে আওয়ামী লীগ।

কাদের বলেন, তৃণমূলের মানুষ যেন বিএনপি-জামায়াতের গুজবের রাজনীতির বিষয়ে সচেতন হয়, সেজন্য দলের এই সাংগঠনিক কার্যক্রম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সফরে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন স্থানে ১১টিরও বেশি পথসভা করার কথা রয়েছে।

দলকে শক্তিশালী করতে ভবিষ্যতে দেশব্যাপী নৌ ও সড়কপথেও সফর করা হবে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, এই যাত্রা আমাদের নির্বাচনী যাত্রা। এই যাত্রা আমাদের অব্যাহত থাকবে। আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর লঞ্চযোগে নির্বাচনী সফর করবো আমরা। এরপর বাই রোডে আমরা চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, কিশোরগঞ্জ যাবো ৷ এই সফরের মাধ্যমে আমরা তৃণমূলে কিছু বার্তা দিতে চাই। সামনের নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতা পূর্ণ হবে। প্রস্তুতি সেভাবেই নিতে হবে। অভ্যন্তরীণ কোনো সমস্যা থাকলে তা নিরসন করা হবে। আমাদের এই যাত্রা তৃণমূল নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করবে।

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী এই সফরে অন্য নেতাদের মধ্যে আছেন দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বি. এম মোজাম্মেল হক, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, উপ-দপ্তর বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর