আজঃ ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - রাত ৯:৪৫

মাদক ব্যবসায়ীর বাড়ি গুঁড়িয়ে দিল জনতা

Published: ফেব্রু ১৮, ২০১৮ - ৯:৪৭ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক:: ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার শেরপুর এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী মনির মিয়ার পাকা বাড়ি গুঁড়িয়ে দিয়েছে মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার জনগণ। পরে আগুন ধরিয়ে বাড়িটির আসবাবপত্রও পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২ মে) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে এলাকার শত শত লোক এতে অংশ নেন। তবে এসময় ওই মাদক ব্যবসায়ী ও তার পরিবারের সদস্যরা বাড়ি ছিলেন না।

এর আগে শেরপুর পশ্চিম পাড়া মাঠ প্রাঙ্গণে গ্রামবাসীর উদ্যোগে মাদক বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ শেষ করেই গ্রামবাসী ওই বাড়িতে হামলা চালায়।

শেরপুর এলাকার পঞ্চায়েত প্রধান-দুই মো. আব্দুল হাসিম খানের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলার পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র মিসেস নায়ার কবীর, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার ও সহ-সভাপতি তাজ মো. ইয়াছিন।

সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন-জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এ মাসুদ, সহকারী পুলিশ সুপার মো. শফিকুল ইসলাম, পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. খবির উদ্দিন, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর হালিমা আক্তার কাজল প্রমুখ।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, মাদক বিরোধী যুদ্ধকে এগিয়ে নিতে হলে সবসময় স্থানীয়দের ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে। সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে এমন শক্ত অবস্থান নিলে সারাদেশের মাদক সংশ্লিষ্টরা সতর্ক হবে।

তিনি আরো বলেন, ওই মাদক ব্যবসায়ীকে বার বার নিষেধ করা সত্ত্বেও তিনি শোনেননি। এজন্য ক্ষুব্ধ হয়ে স্থানীয় জনগণ তার বাড়ি ভাঙচুর করেছে।

বাড়ি ভাঙচুর আইনসিদ্ধ কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে মানুষের প্রতিবাদকে সম্মান করতে হবে। তবে এভাবে বাড়ি ভাঙচুর করা ঠিক নয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক:: ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার শেরপুর এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী মনির মিয়ার পাকা বাড়ি গুঁড়িয়ে দিয়েছে মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার জনগণ। পরে আগুন ধরিয়ে বাড়িটির আসবাবপত্রও পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২ মে) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে এলাকার শত শত লোক এতে অংশ নেন। তবে এসময় ওই মাদক ব্যবসায়ী ও তার পরিবারের সদস্যরা বাড়ি ছিলেন না।

এর আগে শেরপুর পশ্চিম পাড়া মাঠ প্রাঙ্গণে গ্রামবাসীর উদ্যোগে মাদক বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ শেষ করেই গ্রামবাসী ওই বাড়িতে হামলা চালায়।

শেরপুর এলাকার পঞ্চায়েত প্রধান-দুই মো. আব্দুল হাসিম খানের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলার পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র মিসেস নায়ার কবীর, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার ও সহ-সভাপতি তাজ মো. ইয়াছিন।

সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন-জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এ মাসুদ, সহকারী পুলিশ সুপার মো. শফিকুল ইসলাম, পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. খবির উদ্দিন, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর হালিমা আক্তার কাজল প্রমুখ।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, মাদক বিরোধী যুদ্ধকে এগিয়ে নিতে হলে সবসময় স্থানীয়দের ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে। সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে এমন শক্ত অবস্থান নিলে সারাদেশের মাদক সংশ্লিষ্টরা সতর্ক হবে।

তিনি আরো বলেন, ওই মাদক ব্যবসায়ীকে বার বার নিষেধ করা সত্ত্বেও তিনি শোনেননি। এজন্য ক্ষুব্ধ হয়ে স্থানীয় জনগণ তার বাড়ি ভাঙচুর করেছে।

বাড়ি ভাঙচুর আইনসিদ্ধ কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে মানুষের প্রতিবাদকে সম্মান করতে হবে। তবে এভাবে বাড়ি ভাঙচুর করা ঠিক নয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর