আজঃ ৫ই পৌষ ১৪২৫ - ১৯শে ডিসেম্বর ২০১৮ - দুপুর ২:৪৫

ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের মেয়েরা

Published: ডিসে ২৪, ২০১৭ - ৪:২৯ অপরাহ্ণ

মো:মশাহিদ আলী :: প্রতিযোগিতায় কোনো গোল না খেয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হলো বাংলাদেশ। নেপালকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার পর লিগের দ্বিতীয় ম্যাচে ভুটানের বিপক্ষে মার্জিয়ারা জিতেছিলেন ৩-০ ব্যবধানে। লিগের শেষ ম্যাচেও ভারতকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ।

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে রোববার দুপুরে শুরু থেকে আক্রমণাত্মক ফুটবলের পসরা মেলে বাংলাদেশ। ষষ্ঠ মিনিটে আনুচিং মোগিনির হেড ক্রসবার উঁচিয়ে বেরিয়ে যায়।

নবম মিনিটে প্রথম আক্রমণে যায় লিগে বাংলাদেশের কাছে ৩-০ গোলে হারা ভারত। পবিত্রা মুরুগেসানের ফ্রি-কিক সোজা গোলরক্ষক মাহমুদা আক্তারের গ্লাভসে জমে যায়।

২২তম মিনিটে একা পেয়েও গোলরক্ষকের গায়ে মেরে সুযোগ নষ্ট করেন আনুচিং। গোল না পাওয়ার হতাশা থাকলেও হাজার দশেক দর্শক ‘বাংলাদেশ-বাংলাদেশ’ স্লোগানে গ্যালারি মাতিয়ে রাখে।

৩২তম মিনিটে দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে দুরূহ কোণ থেকে তহুরার নেওয়া শটে দূরের পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। একটু দূরে থাকায় আনুচিং দরকারি টোকা দিতে পারেননি।

৪১তম মিনিটে আসে কাঙ্ক্ষিত গোল। ডান দিক দিয়ে আক্রমণে উঠে শামসুন্নাহারের বাড়ানো বলে আনুচিংয়ের শট গোলরক্ষক ফেরানোর পর ফিরতি শটে লক্ষ্যভেদ করেন শামসুন্নাহার। প্রতিযোগিতায় এ নিয়ে দ্বিতীয় গোল করলেন এ ডিফেন্ডার। গ্যালারিতে উৎসবের ঢেউ পায় বাড়তি মাত্রা।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ব্যবধান দ্বিগুণের সুযোগ নষ্ট হয় বাংলাদেশের। বাঁ দিক থেকে মার্জিয়ার নেওয়া কর্নারে ছোট ডি বক্সের ভেতর থেকে আনুচিংয়ের হেড ক্রসবারের ওপর দিয়ে বেরিয়ে যায়। ৫৭তম মিনিটে ডান দিকে দিয়ে ডি-বক্সের ভেতর ঢুকে আনুচিংয়ের আরেকটি গোলের প্রচেষ্টা ফিস্ট করে ফেরান গোলরক্ষক।

৬১তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সহজ সুযোগ নষ্ট হয়। মাঝ মাঠ থেকে মার্জিয়ার পাস থেকে পাওয়া বল আনুচিং আলতো টোকায় বাড়িয়ে দেন তহুরাকে। শট না নিয়ে গোলরক্ষককে কাটাতে গিয়ে দেরি করে ফেলেন এই ফরোয়ার্ড।

শেষ দিকে ভারতের রক্ষণে চাপ বজায় রেখে ব্যবধান বাড়ানোর চেষ্টা করে যায় বাংলাদেশ। মনিকার ক্রসে ঋতুপর্না ও শামসুন্নাহার কেউই গোলমুখ থেকে টোকা দেওয়ার কাজটুকু করতে পারায় আর গোল আসেনি। তবে প্রথমবারের মতো সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের উৎসবের আনন্দে কমতি হয়নি মরিয়াদের। গ্যালারিতে আসা সমর্থকরাও সাক্ষী হলেন দারুণ এক জয়ের।

Facebook Comments

মো:মশাহিদ আলী :: প্রতিযোগিতায় কোনো গোল না খেয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হলো বাংলাদেশ। নেপালকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার পর লিগের দ্বিতীয় ম্যাচে ভুটানের বিপক্ষে মার্জিয়ারা জিতেছিলেন ৩-০ ব্যবধানে। লিগের শেষ ম্যাচেও ভারতকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ।

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে রোববার দুপুরে শুরু থেকে আক্রমণাত্মক ফুটবলের পসরা মেলে বাংলাদেশ। ষষ্ঠ মিনিটে আনুচিং মোগিনির হেড ক্রসবার উঁচিয়ে বেরিয়ে যায়।

নবম মিনিটে প্রথম আক্রমণে যায় লিগে বাংলাদেশের কাছে ৩-০ গোলে হারা ভারত। পবিত্রা মুরুগেসানের ফ্রি-কিক সোজা গোলরক্ষক মাহমুদা আক্তারের গ্লাভসে জমে যায়।

২২তম মিনিটে একা পেয়েও গোলরক্ষকের গায়ে মেরে সুযোগ নষ্ট করেন আনুচিং। গোল না পাওয়ার হতাশা থাকলেও হাজার দশেক দর্শক ‘বাংলাদেশ-বাংলাদেশ’ স্লোগানে গ্যালারি মাতিয়ে রাখে।

৩২তম মিনিটে দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে দুরূহ কোণ থেকে তহুরার নেওয়া শটে দূরের পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। একটু দূরে থাকায় আনুচিং দরকারি টোকা দিতে পারেননি।

৪১তম মিনিটে আসে কাঙ্ক্ষিত গোল। ডান দিক দিয়ে আক্রমণে উঠে শামসুন্নাহারের বাড়ানো বলে আনুচিংয়ের শট গোলরক্ষক ফেরানোর পর ফিরতি শটে লক্ষ্যভেদ করেন শামসুন্নাহার। প্রতিযোগিতায় এ নিয়ে দ্বিতীয় গোল করলেন এ ডিফেন্ডার। গ্যালারিতে উৎসবের ঢেউ পায় বাড়তি মাত্রা।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ব্যবধান দ্বিগুণের সুযোগ নষ্ট হয় বাংলাদেশের। বাঁ দিক থেকে মার্জিয়ার নেওয়া কর্নারে ছোট ডি বক্সের ভেতর থেকে আনুচিংয়ের হেড ক্রসবারের ওপর দিয়ে বেরিয়ে যায়। ৫৭তম মিনিটে ডান দিকে দিয়ে ডি-বক্সের ভেতর ঢুকে আনুচিংয়ের আরেকটি গোলের প্রচেষ্টা ফিস্ট করে ফেরান গোলরক্ষক।

৬১তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সহজ সুযোগ নষ্ট হয়। মাঝ মাঠ থেকে মার্জিয়ার পাস থেকে পাওয়া বল আনুচিং আলতো টোকায় বাড়িয়ে দেন তহুরাকে। শট না নিয়ে গোলরক্ষককে কাটাতে গিয়ে দেরি করে ফেলেন এই ফরোয়ার্ড।

শেষ দিকে ভারতের রক্ষণে চাপ বজায় রেখে ব্যবধান বাড়ানোর চেষ্টা করে যায় বাংলাদেশ। মনিকার ক্রসে ঋতুপর্না ও শামসুন্নাহার কেউই গোলমুখ থেকে টোকা দেওয়ার কাজটুকু করতে পারায় আর গোল আসেনি। তবে প্রথমবারের মতো সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের উৎসবের আনন্দে কমতি হয়নি মরিয়াদের। গ্যালারিতে আসা সমর্থকরাও সাক্ষী হলেন দারুণ এক জয়ের।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর