আজঃ ২রা কার্তিক ১৪২৫ - ১৭ই অক্টোবর ২০১৮ - সন্ধ্যা ৭:০৩

বৃষ্টি উপেক্ষা করে পরিক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের সহযোগীতায় সিলেটের ছাত্রলীগ

Published: অক্টো ১৩, ২০১৮ - ৫:০৬ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন :: শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ ১ম সেমিস্টারের ভর্তি পরীক্ষা আজ শনিবার (১৩ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়েছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা পরীক্ষার্থীদের নানাভাবে সহযোগীতা করছে সিলেটের ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা। কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায় এমন চিত্র।

সিলেটের এমসি কলেজে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা বৃষ্টি উপেক্ষা করে ছাত্রছাত্রীদের পরিক্ষার হল দেখিয়ে দিচ্ছে, কোন কোন কেন্দ্রে ভর্তি পরিক্ষার্থীদের বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করছে ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন হলে নিজের থাকার যায়গাটুকুও ভর্তি পরিক্ষা দিতে শিক্ষার্থীদের জন্য ছেড়ে দিয়েছে।

এদিকে এবারের পরীক্ষায় ৭৬ হাজার ১৮২ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে ‘এ’ ইউনিটে ৬১৩টি ও ‘বি’ ইউনিটে ৯৯০টি আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

এছাড়া ইউনিটভুক্ত আসন ছাড়াও সংরক্ষিত আসনে সর্বমোট ১০০ জন শিক্ষার্থী (মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কোটায় ২৮ জন, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী/জাতিসত্তা/হরিজন-দলিত কোটায় ২৮, প্রতিবন্ধী কোটায় ১৪, চা শ্রমিক কোটায় ৪, বিকেএসপি কোটায় ৬ ও পোষ্য কোটায় ২০) বিভিন্ন বিভাগে ভর্তি করা হবে।

‘এ’ ইউনিটের ৬১৩টি আসনের বিপরীতে ২৮ হাজার ৮৫১ জন এবং ‘বি’ ইউনিটে ৯৯০টি আসনের বিপরীতে ৪৭ হাজার ৩৩১ জন আবেদন করেছেন।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন :: শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ ১ম সেমিস্টারের ভর্তি পরীক্ষা আজ শনিবার (১৩ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়েছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা পরীক্ষার্থীদের নানাভাবে সহযোগীতা করছে সিলেটের ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা। কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায় এমন চিত্র।

সিলেটের এমসি কলেজে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা বৃষ্টি উপেক্ষা করে ছাত্রছাত্রীদের পরিক্ষার হল দেখিয়ে দিচ্ছে, কোন কোন কেন্দ্রে ভর্তি পরিক্ষার্থীদের বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করছে ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন হলে নিজের থাকার যায়গাটুকুও ভর্তি পরিক্ষা দিতে শিক্ষার্থীদের জন্য ছেড়ে দিয়েছে।

এদিকে এবারের পরীক্ষায় ৭৬ হাজার ১৮২ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে ‘এ’ ইউনিটে ৬১৩টি ও ‘বি’ ইউনিটে ৯৯০টি আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

এছাড়া ইউনিটভুক্ত আসন ছাড়াও সংরক্ষিত আসনে সর্বমোট ১০০ জন শিক্ষার্থী (মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কোটায় ২৮ জন, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী/জাতিসত্তা/হরিজন-দলিত কোটায় ২৮, প্রতিবন্ধী কোটায় ১৪, চা শ্রমিক কোটায় ৪, বিকেএসপি কোটায় ৬ ও পোষ্য কোটায় ২০) বিভিন্ন বিভাগে ভর্তি করা হবে।

‘এ’ ইউনিটের ৬১৩টি আসনের বিপরীতে ২৮ হাজার ৮৫১ জন এবং ‘বি’ ইউনিটে ৯৯০টি আসনের বিপরীতে ৪৭ হাজার ৩৩১ জন আবেদন করেছেন।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর