আজঃ ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - বিকাল ৩:৪৫

বরকতউল্লাহসহ ২৩ বিএনপি নেতা–কর্মীর বিরুদ্ধে পরোয়ানা

Published: ফেব্রু ১৮, ২০১৮ - ২:২৪ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক:: রামপুরা থানায় পৃথক দুটি মামলায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বরকতউল্লাহসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

আজ রোববার মামলা দুটির অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা এ আদেশ দেন।

সরকারি কৌঁসুলি তাপস কুমার পাল বলেন, বিশেষ ক্ষমতা আইন ও বিস্ফোরক আইনে দুটি মামলার অভিযোগপত্র আমলে নেওয়ার দিন ধার্য ছিল আজ। আদালত মামলা দুটির অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে বিএনপি নেতা বরকতউল্লাহ, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শওকত মাহমুদসহ বিএনপির ২৩ জন নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। কারণ, এদিন আসামিরা আদালতে হাজির ছিলেন না।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেসসচিব মারুফ কামাল খান সোহেল, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, বিএনপি নেতা হাবীবুন নবী খান, শফিউল বারী, আজিজুল বারী, শরাফত আলী, শিরীন সুলতানা ও কাইয়ুম কমিশনার।

২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি মালিবাগে ন্যাশনাল ব্যাংকের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ, পুলিশের ওপর হামলা, জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির ঘটনায় পুলিশ মামলা দুটি করে। পরে তদন্ত শেষে ৪১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। এ মামলায় একজন কারাগারে রয়েছেন।

 

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক:: রামপুরা থানায় পৃথক দুটি মামলায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বরকতউল্লাহসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

আজ রোববার মামলা দুটির অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা এ আদেশ দেন।

সরকারি কৌঁসুলি তাপস কুমার পাল বলেন, বিশেষ ক্ষমতা আইন ও বিস্ফোরক আইনে দুটি মামলার অভিযোগপত্র আমলে নেওয়ার দিন ধার্য ছিল আজ। আদালত মামলা দুটির অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে বিএনপি নেতা বরকতউল্লাহ, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শওকত মাহমুদসহ বিএনপির ২৩ জন নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। কারণ, এদিন আসামিরা আদালতে হাজির ছিলেন না।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেসসচিব মারুফ কামাল খান সোহেল, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, বিএনপি নেতা হাবীবুন নবী খান, শফিউল বারী, আজিজুল বারী, শরাফত আলী, শিরীন সুলতানা ও কাইয়ুম কমিশনার।

২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি মালিবাগে ন্যাশনাল ব্যাংকের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ, পুলিশের ওপর হামলা, জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির ঘটনায় পুলিশ মামলা দুটি করে। পরে তদন্ত শেষে ৪১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। এ মামলায় একজন কারাগারে রয়েছেন।

 

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর