আজঃ ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - দুপুর ১:৪৮

পাকিস্তানের বিপক্ষে জয় আমাদের প্রাপ্য: জেমি ডে

Published: সেপ্টে ০৬, ২০১৮ - ১১:২৯ অপরাহ্ণ

ক্রীড়া ডেস্ক :: বলের নিয়ন্ত্রণে এগিয়ে থাকলেও আক্রমণ জোরালো হচ্ছিল না। তাই কাঙিক্ষত গোলের দেখা মিলল ম্যাচের শেষ দিকে এসে। পাকিস্তানকে হারানোর পর শিষ্যদের প্রশংসায় ভাসালেন জেমি ডে। জয়টা তাদের প্রাপ্য বলেই বিশ্বাস বাংলাদেশের কোচের।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার ‘এ’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানকে তপু বর্মনের একমাত্র গোলে হারায় বাংলাদেশ। টানা দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে রয়েছে ডের দল।

শীর্ষে থাকলেও বাংলাদেশের সেমি-ফাইনাল এখনও নিশ্চিত নয়। তবে এখন এটা নিয়ে খুব বেশি ভাবতে চাইছেন না কোচ। আপাতত পাকিস্তানের বিপক্ষে পাওয়া জয়টি উদযাপনের পক্ষে তিনি।

“আমি ছেলেদের নিয়ে ভীষণ খুশি। পাকিস্তানের বিপক্ষে ছেলেরা খুবই কঠোর পরিশ্রম করেছে। আমাদের কখনও কখনও ধৈর্য্য ধরতে হবে (গোলের জন্য)। আমি মনে করি, ফিটনেস গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এবং সেটা আজ আপনারাও দেখেছেন।”

“এই জয় দলের প্রাপ্য এবং অবশ্যই আমরা এখনও সেমি-ফাইনালে যায়নি। টানা দুই ম্যাচ জিতেছি; কিন্তু এখনও আমাদের হাতে তৃতীয় ম্যাচটি রয়েছে। গ্রুপে ভালো করতে আমরা শেষ ম্যাচটিও জিততে চাই। আমি ছেলেদের আজকে এই জয় উদযাপন করতে দিব এবং আগামীকাল থেকে সেমি-ফাইনালে ওঠার জন্য আমরা আবারও কাজ শুরু করব।”

“আমি নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে পারছি না। নয় বছর পর বাংলাদেশকে সাফের সেমি-ফাইনালের পথে দেখে আমার খুবই ভালো লাগছে। এত দর্শকের সামনে এই জয় পাওয়া আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল। এটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ দিন এবং দিন শেষে জয় পাওয়ায় আমরা দারুণ উচ্ছ্বসিত।”

গত ১৫টি সপ্তাহ ধরে জামাল-তপুদের নিয়ে যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন সেই কোচিং স্টাফদের প্রশংসা করতেও ভোলেননি জেমি।

“আমি এই ছেলেদের, কোচিং স্টাফ এবং অন্য যারা ছিলেন, দলীয় প্রচেষ্টার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট তাদেরকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। দিন শেষে এই সাফল্য একটা দলীয় প্রচেষ্টার ফসল।”

Facebook Comments

ক্রীড়া ডেস্ক :: বলের নিয়ন্ত্রণে এগিয়ে থাকলেও আক্রমণ জোরালো হচ্ছিল না। তাই কাঙিক্ষত গোলের দেখা মিলল ম্যাচের শেষ দিকে এসে। পাকিস্তানকে হারানোর পর শিষ্যদের প্রশংসায় ভাসালেন জেমি ডে। জয়টা তাদের প্রাপ্য বলেই বিশ্বাস বাংলাদেশের কোচের।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার ‘এ’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানকে তপু বর্মনের একমাত্র গোলে হারায় বাংলাদেশ। টানা দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে রয়েছে ডের দল।

শীর্ষে থাকলেও বাংলাদেশের সেমি-ফাইনাল এখনও নিশ্চিত নয়। তবে এখন এটা নিয়ে খুব বেশি ভাবতে চাইছেন না কোচ। আপাতত পাকিস্তানের বিপক্ষে পাওয়া জয়টি উদযাপনের পক্ষে তিনি।

“আমি ছেলেদের নিয়ে ভীষণ খুশি। পাকিস্তানের বিপক্ষে ছেলেরা খুবই কঠোর পরিশ্রম করেছে। আমাদের কখনও কখনও ধৈর্য্য ধরতে হবে (গোলের জন্য)। আমি মনে করি, ফিটনেস গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এবং সেটা আজ আপনারাও দেখেছেন।”

“এই জয় দলের প্রাপ্য এবং অবশ্যই আমরা এখনও সেমি-ফাইনালে যায়নি। টানা দুই ম্যাচ জিতেছি; কিন্তু এখনও আমাদের হাতে তৃতীয় ম্যাচটি রয়েছে। গ্রুপে ভালো করতে আমরা শেষ ম্যাচটিও জিততে চাই। আমি ছেলেদের আজকে এই জয় উদযাপন করতে দিব এবং আগামীকাল থেকে সেমি-ফাইনালে ওঠার জন্য আমরা আবারও কাজ শুরু করব।”

“আমি নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে পারছি না। নয় বছর পর বাংলাদেশকে সাফের সেমি-ফাইনালের পথে দেখে আমার খুবই ভালো লাগছে। এত দর্শকের সামনে এই জয় পাওয়া আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল। এটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ দিন এবং দিন শেষে জয় পাওয়ায় আমরা দারুণ উচ্ছ্বসিত।”

গত ১৫টি সপ্তাহ ধরে জামাল-তপুদের নিয়ে যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন সেই কোচিং স্টাফদের প্রশংসা করতেও ভোলেননি জেমি।

“আমি এই ছেলেদের, কোচিং স্টাফ এবং অন্য যারা ছিলেন, দলীয় প্রচেষ্টার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট তাদেরকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। দিন শেষে এই সাফল্য একটা দলীয় প্রচেষ্টার ফসল।”

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর