আজঃ ১লা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ - ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ - রাত ১২:৪১

নির্বাচনের মাঠে থাকবো : রাবেল

Published: সেপ্টে ০৬, ২০১৮ - ১১:৫৭ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন প্রতিবেদক :: সিলেটের গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে মাঠে থাকার কথা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত যুক্তরাজ্য আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক আমিরুল ইসলাম রাবেল।

তিনি তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়া বলেন- দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আমি আশাবাদী ছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্য বশত আমি মনোনয়ন পাইনি। জনগণের চাপে আমি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে মাঠে থাকবো এবং নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবো।

তবে অপর মনোনয়ন বঞ্চিত উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রুহেল আহমদ জানিয়েছেন- দলের সিদ্ধান্তে তিনি অটল। দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন।

তাঁর জন্য যাঁরা কাজ করেছেন সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন- ‘নেত্রীর বাহিরে আমরা কেউ নয় ; তাঁর মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে এবং স্বাধীনতার প্রতীক নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে।’

উল্লেখ্য- বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।

আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি ও দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় গোলাপপঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে বেক মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া আহমদ পাপলুকে চূড়ান্ত করা হয়।

প্রসঙ্গত – ৩১ মে বৃহস্পতিবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র সিরাজুল জব্বার চৌধুরী মৃত্যুবরণ করায় মেয়র পদটি শূন্য হয়। শূন্য পদে নির্বাচনের জন্য তফশিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৯ সেপ্টেম্বর, মনোনয়ন বাছাইয়ের শেষ দিন ১০ সেপ্টেম্বর এবং মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৭ সেপ্টেম্বর। নির্বাচন ৩ অক্টোবর।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন প্রতিবেদক :: সিলেটের গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে মাঠে থাকার কথা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত যুক্তরাজ্য আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক আমিরুল ইসলাম রাবেল।

তিনি তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়া বলেন- দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আমি আশাবাদী ছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্য বশত আমি মনোনয়ন পাইনি। জনগণের চাপে আমি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে মাঠে থাকবো এবং নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবো।

তবে অপর মনোনয়ন বঞ্চিত উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রুহেল আহমদ জানিয়েছেন- দলের সিদ্ধান্তে তিনি অটল। দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন।

তাঁর জন্য যাঁরা কাজ করেছেন সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন- ‘নেত্রীর বাহিরে আমরা কেউ নয় ; তাঁর মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে এবং স্বাধীনতার প্রতীক নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে।’

উল্লেখ্য- বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।

আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি ও দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় গোলাপপঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে বেক মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া আহমদ পাপলুকে চূড়ান্ত করা হয়।

প্রসঙ্গত – ৩১ মে বৃহস্পতিবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র সিরাজুল জব্বার চৌধুরী মৃত্যুবরণ করায় মেয়র পদটি শূন্য হয়। শূন্য পদে নির্বাচনের জন্য তফশিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৯ সেপ্টেম্বর, মনোনয়ন বাছাইয়ের শেষ দিন ১০ সেপ্টেম্বর এবং মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৭ সেপ্টেম্বর। নির্বাচন ৩ অক্টোবর।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর