আজঃ ৮ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - সকাল ৭:৪০

নানা আয়োজনে পালিত হচ্ছে পতাকা উত্তোলন দিবস

Published: মার্চ ০২, ২০১৮ - ৩:১০ অপরাহ্ণ

প্রতিদিন ডেস্ক:: আজ ২ মার্চ ঐতিহাসিক পতাকা উত্তোলন দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে এক ছাত্র সমাবেশে সর্বপ্রথম বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়। তৎকালীন ডাকসু সভাপতি আ স ম আবদুর রব ঢাকা বশ্বিবিদ্যালয়ের কলাভবনের সামনে লাল-সবুজের এই পতাকা উত্তোলন করেন।

একই জাতীয় পতাকা ২৩ মার্চ ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের নিজ বাড়িতে উত্তোলন করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

মুক্তিযুদ্ধের সময় ১৭ এপ্রিল মেহেরপুরের আম্রকাননে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের সঙ্গে সঙ্গে সর্বপ্রথম জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া হয়। মেহেরপুরের সেই ঐতিহাসিক আম্র্রকানন বর্তমানে মুজিবনগর নামে পরিচিত।

১৯৭০ সালের ৬ জুন রাতে কামরুল আলম খান খসরু সবুজ কাপড়ের মাঝে লালবৃত্ত সেলাই করে একটি কাপড় নিয়ে আসেন। ঢাকার নিউমার্কেট থেকে নিয়ে আসা কাপড়টি রাখা হয় তৎকালীন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের কায়েদে আজম (বর্তমানে তিতুমীর হল) হলের একটি কক্ষে। তখনও এটি পতাকা হয়ে ওঠেনি। ছাত্রনেতা শিবনারায়ণ দাশ তার নিজহাতে লালবৃত্তের মাঝে নিপুণভাবে বাংলাদেশের মানচিত্র এঁকে পতাকাটির নকশা চূড়ান্ত করেন।

১৯৭২ সালে এই নকশার পতাকাটির মাঝখান থেকে মানচিত্র বাদ দিয়ে লালবৃত্ত সংযোজন করা হয়। এটি উদীয়মান সূর্যের প্রতীক। যা মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী শহীদদের রক্তের স্মৃতি বহন করে।

প্রতিবছর ২ মার্চকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশে জাতীয় পতাকা দিবস পালিত হয়। আজও দিনটিকে স্মরণ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশে নানা আয়োজনে পতাকা দিবস পালন করা হচ্ছে। রাজনৈতিক, পেশাজীবী ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসমূহ আলোচনা সভা, র‌্যালির আয়োজন করেছে। এ উপলক্ষে আজ বিকাল তিনটায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে জেএসডি। এতে সাবেক রাষ্ট্রপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন। প্রধান আলোচক থাকবেন ড. কামাল হোসেন। স্মৃতিচারণ করবেন জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রবসহ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

Facebook Comments

প্রতিদিন ডেস্ক:: আজ ২ মার্চ ঐতিহাসিক পতাকা উত্তোলন দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে এক ছাত্র সমাবেশে সর্বপ্রথম বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়। তৎকালীন ডাকসু সভাপতি আ স ম আবদুর রব ঢাকা বশ্বিবিদ্যালয়ের কলাভবনের সামনে লাল-সবুজের এই পতাকা উত্তোলন করেন।

একই জাতীয় পতাকা ২৩ মার্চ ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের নিজ বাড়িতে উত্তোলন করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

মুক্তিযুদ্ধের সময় ১৭ এপ্রিল মেহেরপুরের আম্রকাননে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের সঙ্গে সঙ্গে সর্বপ্রথম জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া হয়। মেহেরপুরের সেই ঐতিহাসিক আম্র্রকানন বর্তমানে মুজিবনগর নামে পরিচিত।

১৯৭০ সালের ৬ জুন রাতে কামরুল আলম খান খসরু সবুজ কাপড়ের মাঝে লালবৃত্ত সেলাই করে একটি কাপড় নিয়ে আসেন। ঢাকার নিউমার্কেট থেকে নিয়ে আসা কাপড়টি রাখা হয় তৎকালীন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের কায়েদে আজম (বর্তমানে তিতুমীর হল) হলের একটি কক্ষে। তখনও এটি পতাকা হয়ে ওঠেনি। ছাত্রনেতা শিবনারায়ণ দাশ তার নিজহাতে লালবৃত্তের মাঝে নিপুণভাবে বাংলাদেশের মানচিত্র এঁকে পতাকাটির নকশা চূড়ান্ত করেন।

১৯৭২ সালে এই নকশার পতাকাটির মাঝখান থেকে মানচিত্র বাদ দিয়ে লালবৃত্ত সংযোজন করা হয়। এটি উদীয়মান সূর্যের প্রতীক। যা মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী শহীদদের রক্তের স্মৃতি বহন করে।

প্রতিবছর ২ মার্চকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশে জাতীয় পতাকা দিবস পালিত হয়। আজও দিনটিকে স্মরণ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশে নানা আয়োজনে পতাকা দিবস পালন করা হচ্ছে। রাজনৈতিক, পেশাজীবী ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসমূহ আলোচনা সভা, র‌্যালির আয়োজন করেছে। এ উপলক্ষে আজ বিকাল তিনটায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে জেএসডি। এতে সাবেক রাষ্ট্রপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন। প্রধান আলোচক থাকবেন ড. কামাল হোসেন। স্মৃতিচারণ করবেন জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রবসহ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর