আজঃ ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - সকাল ৯:৪৮

জাফর ইকবালের ওপর হামলাকারীর বাবা-মা আটক

Published: মার্চ ০৪, ২০১৮ - ১১:৫৯ অপরাহ্ণ

প্রতিদিন ডেস্ক::শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও জনপ্রিয় লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলাকারী ফায়জুল হাসান ওরফে শফিকুরের বাবা মাওলানা আতিকুর রহমান ও মা মিনারা বেগম আটক করেছে পুলিশ।

রোববার রাত পৌনে ১১টায় আত্মসমর্পণের জন্য জালালাবাদ থানায় যাওয়ার সময় নগরের মদিনা মার্কেট এলাকায় তাদের আটক করে এসএমপি পুলিশ।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জ্যোর্তিময় সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে দুপুরে হামলাকারী ফায়জুলের মামী খাদিজা আক্তার চৌধুরী রিপা জানিয়েছিলেন ফায়জুলের বাবা-মা আত্মসমর্পণের জন্য জালালাবাদ থানায়য় আসার জন্য রওয়ানা দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে একটি অনুষ্ঠানে পেছন থেকে অধ্যাপক জাফর ইকবালের মাথা, পিঠে ও হাতে ছুরিকাঘাত করে ফয়জুল নামে এক যুবক। পরে হামলাকারীকে শিক্ষার্থীরা ধরে পিটুনি দিয়ে আটকে রাখে। পরে রাত সাড়ে ৯টায় র‌্যাব তাকে উদ্ধার করে প্রথমে রাগীব রাবেয়া হাসপাতালে ও পরে সিলেট সিএমএইচ হাসপাতালে ভর্তি করে।

আর অধ্যাপক জাফর ইকবালকে প্রথমে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারপর রাতেই হেলিকপ্টারযোগে তাকে ঢাকায় সিএমএইচ হাসপাতালে নেয়া হয়

Facebook Comments

প্রতিদিন ডেস্ক::শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও জনপ্রিয় লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলাকারী ফায়জুল হাসান ওরফে শফিকুরের বাবা মাওলানা আতিকুর রহমান ও মা মিনারা বেগম আটক করেছে পুলিশ।

রোববার রাত পৌনে ১১টায় আত্মসমর্পণের জন্য জালালাবাদ থানায় যাওয়ার সময় নগরের মদিনা মার্কেট এলাকায় তাদের আটক করে এসএমপি পুলিশ।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জ্যোর্তিময় সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে দুপুরে হামলাকারী ফায়জুলের মামী খাদিজা আক্তার চৌধুরী রিপা জানিয়েছিলেন ফায়জুলের বাবা-মা আত্মসমর্পণের জন্য জালালাবাদ থানায়য় আসার জন্য রওয়ানা দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে একটি অনুষ্ঠানে পেছন থেকে অধ্যাপক জাফর ইকবালের মাথা, পিঠে ও হাতে ছুরিকাঘাত করে ফয়জুল নামে এক যুবক। পরে হামলাকারীকে শিক্ষার্থীরা ধরে পিটুনি দিয়ে আটকে রাখে। পরে রাত সাড়ে ৯টায় র‌্যাব তাকে উদ্ধার করে প্রথমে রাগীব রাবেয়া হাসপাতালে ও পরে সিলেট সিএমএইচ হাসপাতালে ভর্তি করে।

আর অধ্যাপক জাফর ইকবালকে প্রথমে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারপর রাতেই হেলিকপ্টারযোগে তাকে ঢাকায় সিএমএইচ হাসপাতালে নেয়া হয়

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর