আজঃ ৪ঠা পৌষ ১৪২৫ - ১৮ই ডিসেম্বর ২০১৮ - রাত ২:৪০

জাফর ইকবালের উপর হামলা প্রমাণ করে দেশে কেউ নিরাপদ নয়

Published: মার্চ ০৩, ২০১৮ - ১১:২৪ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক:: লেখক ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালের উপর হামলার প্রতিবাদে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে গণজাগরণ মঞ্চ, সিলেট। শনিবার (৩ মার্চ) রাত সাড়ে ৮টায় রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়ামের সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে চৌহাট্টা ঘুরে সিটি পয়েন্টে গিয়ে শেষ হয়।

সিটি পয়েন্টে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সুরক্ষিত ক্যাম্পাসে পুলিশ বেষ্টনীর মধ্যে জাফর ইকবালের মতো ব্যক্তির উপর হামলা প্রমাণ করে দেশে কেউ এখন নিরাপদ নয়।

বক্তারা বলেন, সরকারে কর্তাব্যক্তি ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় বলা হচ্ছে দেশ থেকে জঙ্গিবাদ নির্মূল করা হয়েছে। সরকারের এই আত্মতৃপ্তিতে জঙ্গিরা আরো আস্কারা পেয়েছে। তারা আজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের মধ্যে দেশের একজন প্রধানতম বুদ্ধিজীবীর উপর হামলা করেছে। হামলার সময় পাশে পুলিশ দাঁড়িয়ে থাকার পরও তারা তাৎক্ষণিক কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। বরং ছাত্ররাই হামলাকারীকে আটক করে।

বক্তারা অবিলম্বে জাফর ইকবালের উপর হামলাকারী ও তার নেপথ্যের লোকদের সনাক্ত করে শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানান।

তারা বলেন, জাফর ইকবাল এদেশের প্রগতিশীল আন্দোলন ও মুক্তবুদ্ধি চর্চার অন্যতম মুখপাত্র। তার উপর হামলা মুক্তবুদ্ধি চর্চার উপরই হামলা।

গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র দেবাশীষ দেবুর সঞ্চালনায় মিছিল পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক সংগঠক এনামুল মনির, পরিবেশ আন্দোলনের সংগঠক আব্দুল করিম কীম, রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী পথিক এন্দ টনি, নাট্যকর্মী জাকির হোসেন, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজতকান্তি গুপ্ত, যুব ইউনিয়নের জেলা সাধারণ সম্পাদক বিএইচ আবির, রাজনৈতিক কর্মী নাজিকুল ইসলাম রানা, নিরঞ্জন দাস খোকন, কবি আবিদ ফায়সাল, শিল্পী সত্যজিত চক্রবর্তী, ছাত্র ইউনিয়ন ঢাবি শাখার সভাপতি তুহিন কান্তি দাস, সংস্কৃতিকর্মী বিমান তালুকদার, বিনয় ভদ্র, অদিতি দাস, তম্রিসা তিথি, নাট্যকর্মী অরূপ বাউল, উজ্জ্বল চক্রবর্তী, ছাত্র নেতা নাবিল এইচ, মাসুম খান, শুভ ধর প্রমুখ।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন ডেস্ক:: লেখক ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালের উপর হামলার প্রতিবাদে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে গণজাগরণ মঞ্চ, সিলেট। শনিবার (৩ মার্চ) রাত সাড়ে ৮টায় রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়ামের সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে চৌহাট্টা ঘুরে সিটি পয়েন্টে গিয়ে শেষ হয়।

সিটি পয়েন্টে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সুরক্ষিত ক্যাম্পাসে পুলিশ বেষ্টনীর মধ্যে জাফর ইকবালের মতো ব্যক্তির উপর হামলা প্রমাণ করে দেশে কেউ এখন নিরাপদ নয়।

বক্তারা বলেন, সরকারে কর্তাব্যক্তি ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় বলা হচ্ছে দেশ থেকে জঙ্গিবাদ নির্মূল করা হয়েছে। সরকারের এই আত্মতৃপ্তিতে জঙ্গিরা আরো আস্কারা পেয়েছে। তারা আজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের মধ্যে দেশের একজন প্রধানতম বুদ্ধিজীবীর উপর হামলা করেছে। হামলার সময় পাশে পুলিশ দাঁড়িয়ে থাকার পরও তারা তাৎক্ষণিক কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। বরং ছাত্ররাই হামলাকারীকে আটক করে।

বক্তারা অবিলম্বে জাফর ইকবালের উপর হামলাকারী ও তার নেপথ্যের লোকদের সনাক্ত করে শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানান।

তারা বলেন, জাফর ইকবাল এদেশের প্রগতিশীল আন্দোলন ও মুক্তবুদ্ধি চর্চার অন্যতম মুখপাত্র। তার উপর হামলা মুক্তবুদ্ধি চর্চার উপরই হামলা।

গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র দেবাশীষ দেবুর সঞ্চালনায় মিছিল পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক সংগঠক এনামুল মনির, পরিবেশ আন্দোলনের সংগঠক আব্দুল করিম কীম, রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী পথিক এন্দ টনি, নাট্যকর্মী জাকির হোসেন, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজতকান্তি গুপ্ত, যুব ইউনিয়নের জেলা সাধারণ সম্পাদক বিএইচ আবির, রাজনৈতিক কর্মী নাজিকুল ইসলাম রানা, নিরঞ্জন দাস খোকন, কবি আবিদ ফায়সাল, শিল্পী সত্যজিত চক্রবর্তী, ছাত্র ইউনিয়ন ঢাবি শাখার সভাপতি তুহিন কান্তি দাস, সংস্কৃতিকর্মী বিমান তালুকদার, বিনয় ভদ্র, অদিতি দাস, তম্রিসা তিথি, নাট্যকর্মী অরূপ বাউল, উজ্জ্বল চক্রবর্তী, ছাত্র নেতা নাবিল এইচ, মাসুম খান, শুভ ধর প্রমুখ।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর