আজঃ ২রা পৌষ ১৪২৫ - ১৬ই ডিসেম্বর ২০১৮ - সকাল ৮:৩৯

খাদিমনগরে স্ত্রীকে হত্যা করে থানায় স্বামীর আত্মসমর্পন

Published: অক্টো ০৫, ২০১৮ - ১:২৭ পূর্বাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন::সিলেট শহরতলীর খাদিমনগর ইউনিয়নের মংলিরপাড় গ্রামে পারিবারিক কলহের জেরধরে শ্বাসরোধ করে স্ত্রীকে হত্যা করার পর মহানগর পুলিশের বিমানবন্দর থানায় আত্মসমর্পন করেছে ঘাতক স্বামী।বৃহস্পতিবার (৪ অক্টোবর) দুপুরে এ ঘটনাটি ঘটে। ঘাতক স্বামীর কাছ থেকে বিষয়টি অবগত হওয়ার পর ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ।

নিহত গৃহবধূ সামসুন্নাহার (২৫) মংলিরপাড় গ্রামের সহিদ আহমদ (৩৫) এর স্ত্রী। তাদের ঘরে দুটি সন্তান রয়েছে। স্ত্রীকে হত্যা করার পর সহিদ কীটনাশক পান করে থানায় যায়। এসময় পুলিশ বিষয়টি বুঝতে পেরে তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করে।

পুলিশ জানায়, সহিদের সাথে প্রায় সময়ই তার স্ত্রী সামসুন্নাহারের ঝগড়া হত। ঘটনার দিনও তাদের দুজনের মধ্যে বেশ ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে সহিদ উত্তেজিত হয়ে ঘরের মধ্যেই সন্তানদের সামনে তার স্ত্রীকে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের বিমানবন্দর থানার ওসি গৌছুল হোসেন জানান, স্ত্রীকে পারিবারিক কলহের কারণে সহিদ হত্যা করেছে বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করে। থানা আসার আগে সে নিজেই কীটনাশক পান করে আসে। থানায় আসার পর পুলিশ বিষয়টি বুঝতে পেরে তাকে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে সে হাসপাতালে রয়েছে।

ঘাতক সহিদের বরাত দিয়ে ওসি জানান, তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে সংসারিক ঝামেলা চলছে। বৃহস্পতিবার ঝগড়া এক পর্যায়ে সহিদ তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে থানায় এসে আত্মসমর্পন করে। এ ঘটনা থানায় নিহত গৃহবধূর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন::সিলেট শহরতলীর খাদিমনগর ইউনিয়নের মংলিরপাড় গ্রামে পারিবারিক কলহের জেরধরে শ্বাসরোধ করে স্ত্রীকে হত্যা করার পর মহানগর পুলিশের বিমানবন্দর থানায় আত্মসমর্পন করেছে ঘাতক স্বামী।বৃহস্পতিবার (৪ অক্টোবর) দুপুরে এ ঘটনাটি ঘটে। ঘাতক স্বামীর কাছ থেকে বিষয়টি অবগত হওয়ার পর ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ।

নিহত গৃহবধূ সামসুন্নাহার (২৫) মংলিরপাড় গ্রামের সহিদ আহমদ (৩৫) এর স্ত্রী। তাদের ঘরে দুটি সন্তান রয়েছে। স্ত্রীকে হত্যা করার পর সহিদ কীটনাশক পান করে থানায় যায়। এসময় পুলিশ বিষয়টি বুঝতে পেরে তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করে।

পুলিশ জানায়, সহিদের সাথে প্রায় সময়ই তার স্ত্রী সামসুন্নাহারের ঝগড়া হত। ঘটনার দিনও তাদের দুজনের মধ্যে বেশ ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে সহিদ উত্তেজিত হয়ে ঘরের মধ্যেই সন্তানদের সামনে তার স্ত্রীকে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের বিমানবন্দর থানার ওসি গৌছুল হোসেন জানান, স্ত্রীকে পারিবারিক কলহের কারণে সহিদ হত্যা করেছে বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করে। থানা আসার আগে সে নিজেই কীটনাশক পান করে আসে। থানায় আসার পর পুলিশ বিষয়টি বুঝতে পেরে তাকে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে সে হাসপাতালে রয়েছে।

ঘাতক সহিদের বরাত দিয়ে ওসি জানান, তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে সংসারিক ঝামেলা চলছে। বৃহস্পতিবার ঝগড়া এক পর্যায়ে সহিদ তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে থানায় এসে আত্মসমর্পন করে। এ ঘটনা থানায় নিহত গৃহবধূর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর