আজঃ ৫ই কার্তিক ১৪২৫ - ২০শে অক্টোবর ২০১৮ - বিকাল ৩:৪৫

কোম্পানীগঞ্জের ৬ ইউপিতে যুবলীগের কমিটি অনুমোদনের আভাস

Published: ফেব্রু ১৩, ২০১৮ - ৪:৫৪ অপরাহ্ণ

কোম্পানীগঞ্জ সংবাদদাতা:: সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ছয়টি ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটি অনুমোদন হওয়ার আভাস পাওয়া গেছে। শ্রীঘই ওই ৬ ইউপিতে কমিটি অনুমোদন হতে যাচ্ছে।

জানা যায়- ১৪ বছর পূর্বে ২০০৩ সালে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটি হয়েছি। এর পর দীর্ঘ একযুগের বেশি সময় হলেও পুর্ণাঙ্গ কমিটি হয়নি। ফলে যুব রাজনীতি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে ছিলেন স্থানীয় যুবলীগ নেতাকর্মীরা। তাঁরা নিজেদের মতো করে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছিলেন। চৌদ্দ বছর পর ২০১৭ সালে ১৮ জুলাই হঠাৎ করেই কেন্দ্রীয় যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত ২১ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহ্বায়ক কমিটি পায় উপজেলা যুবলীগ।

কমিটির পাওয়ার পর থেকে আহ্বায়ক কমিটি ৬টি ইউনিয়নে কর্মী সম্মেলন শেষ করেছে, চলতি সপ্তাহের মধ্যে কমিটি আসতে পারে বলে জানিয়েছেন উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক হাজী আলা উদ্দিন।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের একাধিক নেতাকর্মীরা ইউনিয়ন কমিটি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, এই কমিটি পকেট কমিটি হবে নাকি প্রকৃত যুবলীগ নেতাকর্মীরা সুযোগ পাবেন তা আমরা বুঝে উঠতে পারতেছিনা। তাঁরা প্রকৃত ও নির্যাতিতদের দিয়ে কমিটি প্রদান করতে সংগঠনের দায়িত্বশীলদের প্রতি আহ্বান জানান।

এব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আব্দুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘দীর্ঘ ১৪ বছর যাবৎ কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের কোন কমিটি না থাকার কারণে যুবলীগের নেতা কর্মীরা পিছিয়ে ছিল। স্থানীয় সংসদের আপ্রাণ প্রচেষ্টায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় ২১ সদস্য বৈশিষ্ট্য একটি আহ্বায়ক কমিটি পায়। কমিটি পাওয়ার পর থেকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে আমরা সদস্য সংগ্রহের কাজ শুরু করি, তাতে আমরা ৭ হাজার সদস্য সংগ্রহ করে প্রতিটি ইউনিয়নে কর্মী সম্মেলন করেছি।

আগামী কিছু দিনের মধ্যে ৬টি ইউনিয়নের কমিটি প্রকাশ করা হবে বলেও এই নেতা বলেন, ওই কমিটিগুলোতে পূর্বের সবকয়টি নির্বাচনে যারা দলীয় প্রার্থীর পক্ষের কাজ করেছেন এবং আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে যাদের মাঠে পাওয়া যাবে তাদের স্থান হবে। বিশেষ করে দুর্দিনে যারা আওয়ামী লীগের পাশে ছিল তাদেরকে বিশেষ মূল্যায়িত করা হবে।

কমিটিগুলোতে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে উপজেলা যুবলীগের দায়িত্বশীলরা কাজ করছেন বলে জানিয়ে আবদুর রহমান বলেন, অনুপ্রবেশকারীদের কমিটি স্থান হবেনা।

Facebook Comments

কোম্পানীগঞ্জ সংবাদদাতা:: সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ছয়টি ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটি অনুমোদন হওয়ার আভাস পাওয়া গেছে। শ্রীঘই ওই ৬ ইউপিতে কমিটি অনুমোদন হতে যাচ্ছে।

জানা যায়- ১৪ বছর পূর্বে ২০০৩ সালে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটি হয়েছি। এর পর দীর্ঘ একযুগের বেশি সময় হলেও পুর্ণাঙ্গ কমিটি হয়নি। ফলে যুব রাজনীতি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে ছিলেন স্থানীয় যুবলীগ নেতাকর্মীরা। তাঁরা নিজেদের মতো করে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছিলেন। চৌদ্দ বছর পর ২০১৭ সালে ১৮ জুলাই হঠাৎ করেই কেন্দ্রীয় যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত ২১ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহ্বায়ক কমিটি পায় উপজেলা যুবলীগ।

কমিটির পাওয়ার পর থেকে আহ্বায়ক কমিটি ৬টি ইউনিয়নে কর্মী সম্মেলন শেষ করেছে, চলতি সপ্তাহের মধ্যে কমিটি আসতে পারে বলে জানিয়েছেন উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক হাজী আলা উদ্দিন।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের একাধিক নেতাকর্মীরা ইউনিয়ন কমিটি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, এই কমিটি পকেট কমিটি হবে নাকি প্রকৃত যুবলীগ নেতাকর্মীরা সুযোগ পাবেন তা আমরা বুঝে উঠতে পারতেছিনা। তাঁরা প্রকৃত ও নির্যাতিতদের দিয়ে কমিটি প্রদান করতে সংগঠনের দায়িত্বশীলদের প্রতি আহ্বান জানান।

এব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আব্দুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘দীর্ঘ ১৪ বছর যাবৎ কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের কোন কমিটি না থাকার কারণে যুবলীগের নেতা কর্মীরা পিছিয়ে ছিল। স্থানীয় সংসদের আপ্রাণ প্রচেষ্টায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় ২১ সদস্য বৈশিষ্ট্য একটি আহ্বায়ক কমিটি পায়। কমিটি পাওয়ার পর থেকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে আমরা সদস্য সংগ্রহের কাজ শুরু করি, তাতে আমরা ৭ হাজার সদস্য সংগ্রহ করে প্রতিটি ইউনিয়নে কর্মী সম্মেলন করেছি।

আগামী কিছু দিনের মধ্যে ৬টি ইউনিয়নের কমিটি প্রকাশ করা হবে বলেও এই নেতা বলেন, ওই কমিটিগুলোতে পূর্বের সবকয়টি নির্বাচনে যারা দলীয় প্রার্থীর পক্ষের কাজ করেছেন এবং আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে যাদের মাঠে পাওয়া যাবে তাদের স্থান হবে। বিশেষ করে দুর্দিনে যারা আওয়ামী লীগের পাশে ছিল তাদেরকে বিশেষ মূল্যায়িত করা হবে।

কমিটিগুলোতে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে উপজেলা যুবলীগের দায়িত্বশীলরা কাজ করছেন বলে জানিয়ে আবদুর রহমান বলেন, অনুপ্রবেশকারীদের কমিটি স্থান হবেনা।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর