আজঃ ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - রাত ৩:৫৮

কানাইঘাটে পুত্রের প্রাণ রক্ষা করতে গিয়ে মায়ের মর্মান্তিক মৃত্যু!

Published: জুন ১৯, ২০১৮ - ১০:৪৩ অপরাহ্ণ

কানাইঘাট প্রতিনিধি :: চারিদিকে বন্যার পানি, বসত বাড়িও তলিয়ে গেছে। সন্তানদের নিয়ে প্রাণ বাচাতে যখন আশ্রয় কেন্দ্রে ছুটে যাওয়ার সময় কুলের সন্তানকে বাঁচাতে গিয়ে বন্যার পানিতে ডুবে কানাইঘাটের বিধবা হোসনেআরা বেগম (৩৫) এর মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটেছে।

এ ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গল বিকেল ৪ টার দিকে কানাইঘাট দিঘীরপার ইউপির দক্ষিণ ঠাকুরের মাটি গ্রামে। জানা যায় ঠাকুরেরমাটি গ্রামের মতি মিয়ার বিধবা মেয়ে হোসনেআরা বেগম দু’সন্তান নিয়ে বাবার বাড়ীতে বসবাস করতেন। উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে দিঘীরপার ইউপির ঠাকুরের মাটি গ্রামসহ আশপাশ এলাকায় ভয়াবহ বন্যা রূপ নিলে মতিয়ার মিয়ার বসত বাড়ীটি তলিয়ে যায়। হোসনেআরা বেগম তার দুই সন্তানকে নিয়ে বন্যার পানি ডিঙ্গিয়ে দিঘীরপার ইউনিয়ন পরিষদ আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়ার পথে ৪ বছরের তার শিশুপুত্র বিস্তীর্ণ এলাকার স্রোতের পানিতে পড়ে গেলে সন্তানকে প্রাণে বাঁচাতে পারলেও হোসনে আরা নিজের জীবন রক্ষা করতে পারেননি। পানির স্রোতে তলিয়ে গিয়ে তার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়। এ সময় তার আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন ভাসমান অবস্থায় ছুটে গিয়ে হোসনে আরা কে প্রাণে রক্ষা করতে পারেননি। ঘটনার সংবাদ শুনার পর তাৎক্ষনিক ভাবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী, দিঘীরপার ইউপির চেয়ারম্যান আলী হোসেন কাজল, সাবেক ছাত্র নেতা তাজিম উদ্দিন সহ শত শত ঘটনাস্থলে ছুটে যান। পানিতে তলিয়ে গিয়ে মর্মান্তিক মৃত্যুর শিকার হোসনে আরার লাশ তারা উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Facebook Comments

কানাইঘাট প্রতিনিধি :: চারিদিকে বন্যার পানি, বসত বাড়িও তলিয়ে গেছে। সন্তানদের নিয়ে প্রাণ বাচাতে যখন আশ্রয় কেন্দ্রে ছুটে যাওয়ার সময় কুলের সন্তানকে বাঁচাতে গিয়ে বন্যার পানিতে ডুবে কানাইঘাটের বিধবা হোসনেআরা বেগম (৩৫) এর মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটেছে।

এ ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গল বিকেল ৪ টার দিকে কানাইঘাট দিঘীরপার ইউপির দক্ষিণ ঠাকুরের মাটি গ্রামে। জানা যায় ঠাকুরেরমাটি গ্রামের মতি মিয়ার বিধবা মেয়ে হোসনেআরা বেগম দু’সন্তান নিয়ে বাবার বাড়ীতে বসবাস করতেন। উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে দিঘীরপার ইউপির ঠাকুরের মাটি গ্রামসহ আশপাশ এলাকায় ভয়াবহ বন্যা রূপ নিলে মতিয়ার মিয়ার বসত বাড়ীটি তলিয়ে যায়। হোসনেআরা বেগম তার দুই সন্তানকে নিয়ে বন্যার পানি ডিঙ্গিয়ে দিঘীরপার ইউনিয়ন পরিষদ আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়ার পথে ৪ বছরের তার শিশুপুত্র বিস্তীর্ণ এলাকার স্রোতের পানিতে পড়ে গেলে সন্তানকে প্রাণে বাঁচাতে পারলেও হোসনে আরা নিজের জীবন রক্ষা করতে পারেননি। পানির স্রোতে তলিয়ে গিয়ে তার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়। এ সময় তার আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন ভাসমান অবস্থায় ছুটে গিয়ে হোসনে আরা কে প্রাণে রক্ষা করতে পারেননি। ঘটনার সংবাদ শুনার পর তাৎক্ষনিক ভাবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী, দিঘীরপার ইউপির চেয়ারম্যান আলী হোসেন কাজল, সাবেক ছাত্র নেতা তাজিম উদ্দিন সহ শত শত ঘটনাস্থলে ছুটে যান। পানিতে তলিয়ে গিয়ে মর্মান্তিক মৃত্যুর শিকার হোসনে আরার লাশ তারা উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর