আজঃ ৪ঠা পৌষ ১৪২৫ - ১৮ই ডিসেম্বর ২০১৮ - রাত ২:৪২

কম্পিউটার ছাড়াই কম্পিউটারের ক্লাস নেন এই শিক্ষক!

Published: মার্চ ০২, ২০১৮ - ৩:০৮ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: কোনও কম্পিউটার ছাড়াই কম্পিউটার প্রযুক্তির ক্লাস নেন রিচার্ড আপিয় আকাটো নামে ঘানার এক শিক্ষক। দেশটির কুমসি শহরের এক স্কুলের ব্ল্যাকবোর্ডে মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের নকশা এঁকে সেটি দিয়েই শিক্ষার্থীদের কম্পিউটার প্রযুক্তি সম্পর্কে শিক্ষাদান করেন তিনি। খবর বিবিসির।

সম্প্রতি নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শিক্ষার্থীদের পড়ানোর সময়ের একটি ছবি শেয়ার করেছেন রিচার্ড। ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন, ঘানার ক্লাসরুমে আইসিটি শেখানোর অভিজ্ঞতা খুব মজার।

রিচার্ড বলেন, আমি আমার ছাত্রদের খুবই পছন্দ করি। তারা যাতে আমার ক্লাসের পড়া ভালভাবে বুঝতে পারে, তার জন্য যা করার দরকার আমি তাই করব।

ছবিটি ফেসবুকে প্রকাশের পরই সেটি ভাইরাল হয়ে গেছে। হাজার হাজার ব্যবহারকারী শেয়ার করেছেন ছবিটি। এরপরই রিচার্ডকে নতুন কম্পিউটার উপহার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে মাইক্রোসফট কর্পোরেশন। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের প্রতি একজন শিক্ষকের এই পরিমাণ নিষ্ঠা দেখে অনলাইনে অনেকেই তাকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন।

স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে ওই শিক্ষক জানান, তার স্কুলে ২০১১ সাল থেকে কোনও কম্পিউটার নেই। কিন্তু শিক্ষার্থীদের তথ্যপ্রযুক্তির ওপর একটি বিষয়ে পরীক্ষা নেয়া হয়। সেজন্যই এই অভিনব উদ্যোগ নিয়েছিলেন তিনি।

Facebook Comments

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: কোনও কম্পিউটার ছাড়াই কম্পিউটার প্রযুক্তির ক্লাস নেন রিচার্ড আপিয় আকাটো নামে ঘানার এক শিক্ষক। দেশটির কুমসি শহরের এক স্কুলের ব্ল্যাকবোর্ডে মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের নকশা এঁকে সেটি দিয়েই শিক্ষার্থীদের কম্পিউটার প্রযুক্তি সম্পর্কে শিক্ষাদান করেন তিনি। খবর বিবিসির।

সম্প্রতি নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শিক্ষার্থীদের পড়ানোর সময়ের একটি ছবি শেয়ার করেছেন রিচার্ড। ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন, ঘানার ক্লাসরুমে আইসিটি শেখানোর অভিজ্ঞতা খুব মজার।

রিচার্ড বলেন, আমি আমার ছাত্রদের খুবই পছন্দ করি। তারা যাতে আমার ক্লাসের পড়া ভালভাবে বুঝতে পারে, তার জন্য যা করার দরকার আমি তাই করব।

ছবিটি ফেসবুকে প্রকাশের পরই সেটি ভাইরাল হয়ে গেছে। হাজার হাজার ব্যবহারকারী শেয়ার করেছেন ছবিটি। এরপরই রিচার্ডকে নতুন কম্পিউটার উপহার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে মাইক্রোসফট কর্পোরেশন। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের প্রতি একজন শিক্ষকের এই পরিমাণ নিষ্ঠা দেখে অনলাইনে অনেকেই তাকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন।

স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে ওই শিক্ষক জানান, তার স্কুলে ২০১১ সাল থেকে কোনও কম্পিউটার নেই। কিন্তু শিক্ষার্থীদের তথ্যপ্রযুক্তির ওপর একটি বিষয়ে পরীক্ষা নেয়া হয়। সেজন্যই এই অভিনব উদ্যোগ নিয়েছিলেন তিনি।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর