আজঃ ১০ই আশ্বিন ১৪২৫ - ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ - দুপুর ২:১৫

ওসমানীনগরে রূপালী ব্যাংকের সাড়ে ৩ লাখ টাকা নিয়ে প্রহরীর চম্পট

Published: সেপ্টে ০৭, ২০১৮ - ১০:৩৩ অপরাহ্ণ

ওসমানীনগর সংবাদদাতা :: সিলেটের ওসমানীনগরের কুরুয়া বাজার রূপালী ব্যাংকের শাখা থেকে সাড়ে ৩ লাখ টাকা নিয়ে তারেক আহমদ (১৯) নামের নিরাপত্তা প্রহরী চম্পট দিয়েছে।

গত সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার কুরুয়া বাজার রূপালী ব্যাংকের শাখায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, গত ৩ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে কুরুয়া বাজার রূপালী ব্যাংক শাখার নিরাপত্তা প্রহরী তারেক আহমদ ব্যাংকের ক্যাশ থেকে নগদ সাড়ে ৩ লাখ টাকা নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে পালিয়ে যায়। বিকেলে ক্যাশের টাকার হিসেবে গড়মিল দেখায় এবং সিসি ক্যামেরা ফুটেজ দেখে টাকা খোয়া যাওয়ার বিষয় নিশ্চিত হয় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। নিরাপত্তা প্রহরী তারেক টাকা নিয়ে কুরুয়া বাজার থেকে একটি প্রাইভেট কার যোগে ঢাকার দিকে রওয়ানা হয়েছে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ব্যাংকের লোকজন অন্য একটি গাড়ি নিয়ে তাকে ভৈরব এলাকায় আটক করেন। আটকের পর তারেকের কাছ থেকে সাড়ে ৩ লাখ টাকা উদ্ধার করে নিরাপত্তা প্রহরী তারেককে ব্যাংকে এনে বরখাস্ত করে একটি মুচলেকা রেখে ছেড়ে দেন ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, ব্যাংকের টাকা চুরির ঘটনা আইনের আওতায় না এনে দামাচাপা দিয়ে চোরকে ছেড়ে দেয়ায় গ্রাহকদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে কুরুয়া বাজার রূপালী ব্যাংক শাখার ম্যানেজার জাফর ইকবাল এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মোবাইল ফোনের কলটি ধরে মিটিংয়ে আছেন বলে লাইন কেটে দেন।

ওসমানীনগর থানার ওসি আলী মাহমুদ জানান, ব্যাংকের টাকা চুরির বিষয়টি তিনি জানেন না। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments

ওসমানীনগর সংবাদদাতা :: সিলেটের ওসমানীনগরের কুরুয়া বাজার রূপালী ব্যাংকের শাখা থেকে সাড়ে ৩ লাখ টাকা নিয়ে তারেক আহমদ (১৯) নামের নিরাপত্তা প্রহরী চম্পট দিয়েছে।

গত সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার কুরুয়া বাজার রূপালী ব্যাংকের শাখায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, গত ৩ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে কুরুয়া বাজার রূপালী ব্যাংক শাখার নিরাপত্তা প্রহরী তারেক আহমদ ব্যাংকের ক্যাশ থেকে নগদ সাড়ে ৩ লাখ টাকা নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে পালিয়ে যায়। বিকেলে ক্যাশের টাকার হিসেবে গড়মিল দেখায় এবং সিসি ক্যামেরা ফুটেজ দেখে টাকা খোয়া যাওয়ার বিষয় নিশ্চিত হয় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। নিরাপত্তা প্রহরী তারেক টাকা নিয়ে কুরুয়া বাজার থেকে একটি প্রাইভেট কার যোগে ঢাকার দিকে রওয়ানা হয়েছে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ব্যাংকের লোকজন অন্য একটি গাড়ি নিয়ে তাকে ভৈরব এলাকায় আটক করেন। আটকের পর তারেকের কাছ থেকে সাড়ে ৩ লাখ টাকা উদ্ধার করে নিরাপত্তা প্রহরী তারেককে ব্যাংকে এনে বরখাস্ত করে একটি মুচলেকা রেখে ছেড়ে দেন ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, ব্যাংকের টাকা চুরির ঘটনা আইনের আওতায় না এনে দামাচাপা দিয়ে চোরকে ছেড়ে দেয়ায় গ্রাহকদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে কুরুয়া বাজার রূপালী ব্যাংক শাখার ম্যানেজার জাফর ইকবাল এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মোবাইল ফোনের কলটি ধরে মিটিংয়ে আছেন বলে লাইন কেটে দেন।

ওসমানীনগর থানার ওসি আলী মাহমুদ জানান, ব্যাংকের টাকা চুরির বিষয়টি তিনি জানেন না। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর