আজঃ ৫ই কার্তিক ১৪২৫ - ২০শে অক্টোবর ২০১৮ - সকাল ৭:১৪

ওবায়দুল কাদেরের প্রস্তাবকে না করে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

Published: অক্টো ০১, ২০১৮ - ১১:৪৩ অপরাহ্ণ

সিলেট প্রতিদিন::পদ্মা সেতুর নামকরণ নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের প্রস্তাবে ‘না’ করে দিয়েছেন দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সম্প্রতি এই সেতু বঙ্গবন্ধু কন্যার নামে হবে জানালেও দলীয় বৈঠকে সাফ জানিয়ে দেন, তিনি রাজি নন।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেশে ফেরেন প্রধানমন্ত্রী। দেশে ফেরার পর সোমবার (১ অক্টোবর) সকালে গণভবনে ওবায়দুল কাদের পদ্মা সেতুর নাম ‘শেখ হাসিনা সেতু’ হবে-এমন প্রস্তাব করলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, না, পদ্মা সেতুর নাম পদ্মা সেতুই হবে। পদ্মাসেতু আমার নামে হবে না। অনেক ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে অনেক কষ্ট করে, দেশীয় অর্থায়নে পদ্মা সেতু করছি নিজের নামের জন্য নয়। এই সেতু হবে দেশের মানুষের জন্য।

ওই বৈঠকে উপস্থিত আওয়ামী কার্যনির্বাহী পরিষদের এক সদস্য বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে বলেছেন, পদ্মা সেতু করব বলছি, পদ্মা সেতুই হবে। কিন্তু সেতুর নাম শেখ হাসিনা সেতু হবে না। এটা পদ্মা সেতুই হবে।

ওই নেতা আরও জানান, এই সেতু তার নামে হবে বলে বক্তব্যে খুশি হননি শেখ হাসিনা। এই কথা সামনে আনায় তিনি অসন্তোষও জানিয়েছেন।

জানতে চাইলে ওই বৈঠকে উপস্থিত আওয়ামী লীগের আরও একজন নেতা বলেন, প্রধানমন্ত্রী আনঅফিসিয়ালভাবে কথা বলেছেন। আমাদের একজন নেতা বলেছিলেন, এই সেতু আপার নামে করা হোক। পরে নেত্রী অসন্তোষ জানিয়ে বলেছেন, ‘আমি নাম চাই না। মানুষের জন্য করেছি। বিশ্বব্যাংক অর্থ বরাদ্দ বাতিল করেছে। তারপরেও আমি এই সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছি। তবে এই সেতুর নাম আমার নামে হবে না’।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে শরীয়তপুরের সিনোহাইড্রোর জাজিরা ঘাট এলাকায় পদ্মা সেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন গিয়ে পদ্মা সেতুর নাম বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নামে করা হবে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন ওবায়দুল কাদের।

Facebook Comments

সিলেট প্রতিদিন::পদ্মা সেতুর নামকরণ নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের প্রস্তাবে ‘না’ করে দিয়েছেন দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সম্প্রতি এই সেতু বঙ্গবন্ধু কন্যার নামে হবে জানালেও দলীয় বৈঠকে সাফ জানিয়ে দেন, তিনি রাজি নন।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেশে ফেরেন প্রধানমন্ত্রী। দেশে ফেরার পর সোমবার (১ অক্টোবর) সকালে গণভবনে ওবায়দুল কাদের পদ্মা সেতুর নাম ‘শেখ হাসিনা সেতু’ হবে-এমন প্রস্তাব করলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, না, পদ্মা সেতুর নাম পদ্মা সেতুই হবে। পদ্মাসেতু আমার নামে হবে না। অনেক ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে অনেক কষ্ট করে, দেশীয় অর্থায়নে পদ্মা সেতু করছি নিজের নামের জন্য নয়। এই সেতু হবে দেশের মানুষের জন্য।

ওই বৈঠকে উপস্থিত আওয়ামী কার্যনির্বাহী পরিষদের এক সদস্য বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে বলেছেন, পদ্মা সেতু করব বলছি, পদ্মা সেতুই হবে। কিন্তু সেতুর নাম শেখ হাসিনা সেতু হবে না। এটা পদ্মা সেতুই হবে।

ওই নেতা আরও জানান, এই সেতু তার নামে হবে বলে বক্তব্যে খুশি হননি শেখ হাসিনা। এই কথা সামনে আনায় তিনি অসন্তোষও জানিয়েছেন।

জানতে চাইলে ওই বৈঠকে উপস্থিত আওয়ামী লীগের আরও একজন নেতা বলেন, প্রধানমন্ত্রী আনঅফিসিয়ালভাবে কথা বলেছেন। আমাদের একজন নেতা বলেছিলেন, এই সেতু আপার নামে করা হোক। পরে নেত্রী অসন্তোষ জানিয়ে বলেছেন, ‘আমি নাম চাই না। মানুষের জন্য করেছি। বিশ্বব্যাংক অর্থ বরাদ্দ বাতিল করেছে। তারপরেও আমি এই সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছি। তবে এই সেতুর নাম আমার নামে হবে না’।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে শরীয়তপুরের সিনোহাইড্রোর জাজিরা ঘাট এলাকায় পদ্মা সেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন গিয়ে পদ্মা সেতুর নাম বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নামে করা হবে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন ওবায়দুল কাদের।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর