এসআইইউ’তে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত

sylpro24
sylpro24

আজ ২৬শে মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। ১৯৭১ সালে আজকের এই দিনে মুক্তির প্রেরণায় উদ্বুদ্ধ হয়ে বাঙালী জাতি মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে পরাধীনতার অন্ধকার থেকে স্বাধীনতার আলোতে আত্মপ্রকাশ করে আমাদের প্রিয় মাতৃভুমি । দিবসটি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান জনাব শামীম আহমেদ ও ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর মো: মনির উদ্দিন শুরুতেই জাতীয় সংগীতের সাথে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করার মধ্য দিয়ে দিন ব্যাপি বিভিন্ন কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সকাল ৭.৩০ মিনিটে সিলেটের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

স্বাধীনতা দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ঋষি কেশ ঘোষ এর সভাপতিত্বে ও আইন বিভাগের প্রধান হুমায়ুন কবিরের পরিচালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসআইইউ’র বোর্ড অব ট্্রাস্টিজের চেয়ারম্যান জনাব শামীম আহমেদ বলেন, স্বাধীনতা দিবসে সকলকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ধুদ্দ হয়ে কাজ করতে হবে এবং সকল অপ্রাপ্তি গুলোর অর্জনে দৃঢ প্রত্যয়ী হতে হবে। তিনি আরও বলেন আমাদের দেশ মাতৃকার শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার্থে সকল নিজ নিজ অবস্থান থেকে প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি পাড়া মহল্লায়ও নজরদারি বাড়াতে হবে। প্রধান বক্তার বক্তব্যে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর মো: মনির উদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে হলে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে বর্তমান তরুণ প্রজন্মকে দেশ গড়ার কাজে মনোনিবেশ করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রশাসন ও জনসংযোগ পরিচালক তারেক উদ্দিন তাজ বলেন যে, ১৯৭১ সালে ২৫শে মার্চ রাত্রে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী কর্তৃক বাঙালীর উপর যে বর্বরোচিত পৈশাচিক হামলা হয়েছিল, তাদের সেই দোসররা সিলেটের পবিত্র মাটিতে তারই পূনরাবৃত্তি ঘটাল ২০১৭ সালে ২৫শে মার্চে । তাই স্বাধীনতার সুফল পেতে হলে আজও আমাদের মুক্তিযুদ্ধ চালিয়ে যেতে হবে। তিনি দোসরদেরকে হুশিয়ারি প্রদান করে সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে উপস্থিত সকলকে নিয়ে দাড়িয়ে ১মিনিট নীরবতা পালন করেন।

আরও বক্তব্য রাখেন মানবিক অনুষদের ডীন প্রফেসর সৈয়দ মুয়ীজুর রহমান, প্রক্টর প্রধান মাহবুব ইবনে সিরাজ, ইসিই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এক্রামুল ফারুক, ব্যবসায় প্রসাশন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আব্দুল্লাহ আলো, ডেপুটি লাইব্রেরিয়ান মোস্তফা কামাল ও ছাত্রদের পক্ষে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন প্রিয়ন্ত কুমার সরকার।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার নুসরত আফজা চৌধুরী, উদযাপন কমিটির সদস্য সহকারী অধ্যাপক আরাফাত, প্রভাষক হুমায়রা রহমান, প্রভাষক ফারজানা আকঞ্জি, প্রভাষক নাসরিন নাহার, সহকারী রেজিস্ট্রার মুসফিকুল আলম, সেকশন অফিসার শামীম আহমদ, জয়নাল আবেদীন, বিপ্রেশ রায়, আব্দুল্লাহ আল মামুন ও অপু চক্রবর্ত্তী সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারী।

অনুষ্ঠানের শেষে স্বাধীনতার গান নিয়ে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশীত হয়। উল্লেখ্য যে, আলোচনার অনুষ্ঠান শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন প্রভাষক শরীফুজ্জামান ও পবিত্র গীতা পাঠ করেন সেকশন অফিসার সুবিনয় আচার্য্য। দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় বিএনসিসি কর্তৃক বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যানকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।

Facebook Comments

Leave a Reply