আজঃ ২৬শে অগ্রহায়ণ ১৪২৫ - ১০ই ডিসেম্বর ২০১৮ - দুপুর ১:৪৭

এশিয়া কাপে ফেবারিট পাকিস্তান

Published: জুলা ৩০, ২০১৮ - ৬:৩৯ অপরাহ্ণ

ক্রীড়া ডেস্ক:: সেপ্টেম্বরের প্রথম দিনেই মাঠে গড়াবে এশিয়া কাপের এবারের আসর। মাসখানেক আগে থেকেই শুরু হয়ে গেল এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের এই টুর্নামেন্টকে ঘিরে আলোচনা। এই টুর্নামেন্টে নিজ দেশকে ফেবারিট মানছেন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান আসাদ শফিক।

এমনিতে এশিয়া কাপে খুব বেশি সফলতা নেই পাকিস্তানের। ২০০০ ও ২০১২ সালের দুই আসরেই কেবল তারা জিততে পেরেছে শিরোপা। তবে এবার এশিয়া কাপের ভেন্যু দুবাই ও আবুধাবি হওয়াতে, যেকেউই এগিয়ে রাখবে ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জয়ীদের।

কেননা বর্তমানে আবুধাবিই যে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের হোমগ্রাউন্ড। সারা বছর এখানেই নিজেদের হোম সিরিজ খেলেন সরফরাজ-ফাখররা। তবে মাঠের সুবিধা নয় বরং গত কয়েক বছর ধরে খেলোয়াড়দের কঠোর পরিশ্রমের ফলস্বরুপ পাকিস্তান এবার এশিয়া কাপে ফেবারিট বলে মনে করেন পাকিস্তানের হয়ে ৬০টি ওয়ানডে খেলা আসাদ।

২০১৭ সালের জানুয়ারির পর থেকে আর ওয়ানডে খেলেননি আসাদ। সম্প্রতি তার হাতে হয়েছে একটি অস্ত্রোপচার। তবে কয়েকদিনের মধ্যেই অনুশীলনে ফেরার কথা রয়েছে তার। এরই ফাঁকে সংবাদ মাধ্যমে আসাদ বলেন, ‘এশিয়া কাপে পাকিস্তানের সম্ভাবনা উজ্জ্বল। এবার আমরা এশিয়া কাপ জিতেও যেতে পারি। খেলোয়াড়রা কঠোর পরিশ্রম করছে। গত দেড় বছরে আমাদের পারফরম্যান্সের উন্নতির ধারা দেখলেই এটি বোঝা যায়।’

এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে লড়বে শ্রীলংকা ও বাংলাদেশ। পাকিস্তানের প্রথম ম্যাচ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় দিনে। বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা দলের বিপক্ষে খেলবে তারা। তবে এশিয়া কাপের সবচেয়ে জমজমাট ম্যাচটি হবে ১৯ সেপ্টেম্বর। যেখানে ‘এ’ গ্রুপের আরেক দল ভারতের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান।

Facebook Comments

ক্রীড়া ডেস্ক:: সেপ্টেম্বরের প্রথম দিনেই মাঠে গড়াবে এশিয়া কাপের এবারের আসর। মাসখানেক আগে থেকেই শুরু হয়ে গেল এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের এই টুর্নামেন্টকে ঘিরে আলোচনা। এই টুর্নামেন্টে নিজ দেশকে ফেবারিট মানছেন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান আসাদ শফিক।

এমনিতে এশিয়া কাপে খুব বেশি সফলতা নেই পাকিস্তানের। ২০০০ ও ২০১২ সালের দুই আসরেই কেবল তারা জিততে পেরেছে শিরোপা। তবে এবার এশিয়া কাপের ভেন্যু দুবাই ও আবুধাবি হওয়াতে, যেকেউই এগিয়ে রাখবে ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জয়ীদের।

কেননা বর্তমানে আবুধাবিই যে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের হোমগ্রাউন্ড। সারা বছর এখানেই নিজেদের হোম সিরিজ খেলেন সরফরাজ-ফাখররা। তবে মাঠের সুবিধা নয় বরং গত কয়েক বছর ধরে খেলোয়াড়দের কঠোর পরিশ্রমের ফলস্বরুপ পাকিস্তান এবার এশিয়া কাপে ফেবারিট বলে মনে করেন পাকিস্তানের হয়ে ৬০টি ওয়ানডে খেলা আসাদ।

২০১৭ সালের জানুয়ারির পর থেকে আর ওয়ানডে খেলেননি আসাদ। সম্প্রতি তার হাতে হয়েছে একটি অস্ত্রোপচার। তবে কয়েকদিনের মধ্যেই অনুশীলনে ফেরার কথা রয়েছে তার। এরই ফাঁকে সংবাদ মাধ্যমে আসাদ বলেন, ‘এশিয়া কাপে পাকিস্তানের সম্ভাবনা উজ্জ্বল। এবার আমরা এশিয়া কাপ জিতেও যেতে পারি। খেলোয়াড়রা কঠোর পরিশ্রম করছে। গত দেড় বছরে আমাদের পারফরম্যান্সের উন্নতির ধারা দেখলেই এটি বোঝা যায়।’

এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে লড়বে শ্রীলংকা ও বাংলাদেশ। পাকিস্তানের প্রথম ম্যাচ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় দিনে। বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা দলের বিপক্ষে খেলবে তারা। তবে এশিয়া কাপের সবচেয়ে জমজমাট ম্যাচটি হবে ১৯ সেপ্টেম্বর। যেখানে ‘এ’ গ্রুপের আরেক দল ভারতের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর