আজঃ ২রা কার্তিক ১৪২৫ - ১৭ই অক্টোবর ২০১৮ - সন্ধ্যা ৭:০১

ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে ঢুকেই নিখোঁজ সাংবাদিক

Published: অক্টো ০৩, ২০১৮ - ১২:১৭ অপরাহ্ণ

A police vehicle waits in front of Saudi Arabia's Consulate in Istanbul, Turkey, October 2, 2018. REUTERS/Osman Orsal

প্রতিদিন ডেস্ক :: সৌদি সরকারের সমালোচক দেশটির প্রবীণ এক সাংবাদিক মঙ্গলবার নিখোঁজ হয়েছেন বলে জানা গেছে।

মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, তুরস্কের ইস্তানবুলে সৌদি আরবের কনস্যুলেট ভবনে যাওয়ার পরই তিনি নিখোঁজ হয়ে যান।

জামাল খাসোগি ওয়াশিংটন পোস্টের জন্য নিয়মিত কলাম লিখতেন। কিন্তু এদিন বিকালে তিনি কনস্যুলেটে ঢোকার পর তাকে আর দেখা যায়নি।

এ সাংবাদিকের বাগদত্তা বলেন, জামাল যখন কনস্যুলেটে ঢোকেন, তখন তিনি বাইরে দাঁড়িয়েছিলেন। কনস্যুলেট বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত তিনি অপেক্ষা করেন, কিন্তু জামাল খাসোগি বেরিয়ে আসেননি।

এর আগে সৌদি সরকারের উপদেষ্টা হিসেবেও কাজ করেছেন জামাল। কিন্তু গত বছর গ্রেফতার এড়াতে তিনি স্বেচ্ছায় যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসনে যান।

ইয়েমেন সৌদি আগ্রাসনসহ তিনি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বেশ কিছু নীতির সমালোচনা করেন।

ওয়াশিংটন পোস্টের আন্তর্জাতিক মতামত বিভাগের সম্পাদক এলি লোপেজ বলেন, আমরা আজ জামালের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারিনি। তিনি কোথায় আছেন, তা নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন।

তিনি বলেন, আমরা পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। তার ব্যাপারে তথ্য নেয়ার চেষ্টা করছি। সাংবাদিক ও ভাষ্যকার হিসেবে কাজ করার জন্য যদি তাকে আটক করা হয়, তবে তা খুবই অন্যায় ও জঘন্য কাজ।

Facebook Comments

প্রতিদিন ডেস্ক :: সৌদি সরকারের সমালোচক দেশটির প্রবীণ এক সাংবাদিক মঙ্গলবার নিখোঁজ হয়েছেন বলে জানা গেছে।

মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, তুরস্কের ইস্তানবুলে সৌদি আরবের কনস্যুলেট ভবনে যাওয়ার পরই তিনি নিখোঁজ হয়ে যান।

জামাল খাসোগি ওয়াশিংটন পোস্টের জন্য নিয়মিত কলাম লিখতেন। কিন্তু এদিন বিকালে তিনি কনস্যুলেটে ঢোকার পর তাকে আর দেখা যায়নি।

এ সাংবাদিকের বাগদত্তা বলেন, জামাল যখন কনস্যুলেটে ঢোকেন, তখন তিনি বাইরে দাঁড়িয়েছিলেন। কনস্যুলেট বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত তিনি অপেক্ষা করেন, কিন্তু জামাল খাসোগি বেরিয়ে আসেননি।

এর আগে সৌদি সরকারের উপদেষ্টা হিসেবেও কাজ করেছেন জামাল। কিন্তু গত বছর গ্রেফতার এড়াতে তিনি স্বেচ্ছায় যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসনে যান।

ইয়েমেন সৌদি আগ্রাসনসহ তিনি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বেশ কিছু নীতির সমালোচনা করেন।

ওয়াশিংটন পোস্টের আন্তর্জাতিক মতামত বিভাগের সম্পাদক এলি লোপেজ বলেন, আমরা আজ জামালের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারিনি। তিনি কোথায় আছেন, তা নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন।

তিনি বলেন, আমরা পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। তার ব্যাপারে তথ্য নেয়ার চেষ্টা করছি। সাংবাদিক ও ভাষ্যকার হিসেবে কাজ করার জন্য যদি তাকে আটক করা হয়, তবে তা খুবই অন্যায় ও জঘন্য কাজ।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর