ইসির সঙ্গে আওয়ামী লীগের সংলাপ বুধবার

sylhetprotidin24
আগামীকাল বুধবার সকাল ১১ টায় আওয়ামী লীগের সঙ্গে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে। সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধান এবং ইলেকট্রনিক ভোটিং পদ্ধতি চালুসহ বেশ কিছু সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে অনুষ্ঠিত সংলাপে তুলে ধরবে আওয়ামী লীগ।
.
আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান ও দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এইচ টি ইমামের নেতৃত্বে দলের ২১ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে অংশ গ্রহণ করবেন।
.
এছাড়াও সংলাপে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন খসরু ও ড. আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, ডা. দীপু মণি, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আব্দুর রহমানসহ দলের সিনিয়র নেতারা অংশ গ্রহণ করবেন।
আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দলের ২১ সদস্যেরএকটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনে গিয়ে ১১টি প্রস্তাব তুলে ধরবে। সকল দলের অংশ গ্রহণে সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করতে বেশ কিছু প্রস্তাবনাও থাকবে। দলের পক্ষ থেকে যে সকল প্রস্তাব তুলে ধরা হবে তার মধ্যে অন্যতম প্রস্তাব থাকবে সংবিধানে নির্বাচনকালীন যে সরকারের কথা বলা হয়েছে, আওয়ামী লীগ চায় এ সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে।
.
ইভিএম ছাড়াও আওয়ামী লীগের প্রস্তাবনায় সেনা মোতায়েন না করা, আরপিওতে বড় ধরনের কোনও পরিবর্তন না আনা, একান্ত জরুরি না হলে সীমানা পুনর্বিন্যাস না করা, প্রবাসীদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তিসহ তাদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করা, ভোটার তালিকার ভুলগুলো দূর করার বিষয় বৈঠকে গুরুত্ব দেয়া হবে।
.
তবে সেনাবাহিনী নিয়ে দলটির বক্তব্য থাকবে, নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন সম্পূর্ণ ইসির এখতিয়ার। ইসি প্রয়োজন মনে করলে আইন-শৃংখলা নিয়ন্ত্রণে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে সেনা মোতায়েন করতে পারে। তবে আরপিওতে আইন-শৃংখলা বাহিনীর সংজ্ঞায় প্রতিরক্ষাবাহিনীকে সংযুক্ত করার প্রয়োজন নেই।
.
নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে আওয়ামী লীগের সংলাপের বিষয়ে জানতে চাইলে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বর্তমান সরকার শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার। এই সরকারই নির্বাচনকালীন সময়ে অন্তবর্তিকালীন সরকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে। এই সরকার রুটিন কাজ গুলো করবে। কিন্তু নির্বাচন পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন। বাসস
Facebook Comments

Leave a Reply