আজঃ ১লা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ - ১৬ই আগস্ট, ২০১৮ ইং - সকাল ১১:০৪

আমি আর আগ্রহী না, আমার আসলে নোংরা লাগছে: খালেদা মাহমুদ

Published: Feb 12, 2018 - 8:04 pm

ক্রীড়া ডেস্ক:: মাঠের বাইরের ইস্যুতে তাকে নিয়ে গণমাধ্যম ও সোশ্যাল মাধ্যমে কথা উঠায় ক্ষোভ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। ক্ষোভ ও আবেগ মিশ্রিত সুরে তিনি আর বাংলাদেশের ক্রিকেটের সঙ্গে কাজ করার অনাগ্রহের কথাও জানিয়েছেন।

প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে না থাকায় ত্রিদেশীয় ও শ্রীলঙ্কা সিরিজে টেকনিক্যাল ডিরেক্টরের আদলে দল পরিচালনার দায়িত্ব পান খালেদ মাহমুদ। ঘরের মাঠে ফেভারিট থেকেও ত্রিদেশীয় সিরিজে চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি বাংলাদেশ। হেরে যায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজও।

সোমবার টি-টোয়েন্টি দলের অনুশীলনের শুরুর দিন কথা বলতে এসে সব বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আবেগী হয়ে যান জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে দুই ইনিংসেই ব্যাটিং ধস নামে বাংলাদেশের। দুই ইনিংস মিলিয়েই দল খেলতে পারেনি ৮০ ওভারও। ত্রিদেশীয় কাপেও লঙ্কানদের বিপক্ষে একশো রানের নিচে অলআউট হয়েছিল। ফাইনালে ২২২ রান তাড়া করতেও জিততে পারেনি। সব মিলিয়ে ব্যর্থতার সিরিজের পর কি তিনি আর দায়িত্বে থাকবেন? এমন প্রশ্ন মাহমুদের জবাব, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি আর আগ্রহী না। আমার আসলে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গেই কাজ করতে ইচ্ছে করছে না। আমার আসলে নোংরা লাগছে সত্যি কথা বলতে গেলে। এতবছর বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে কাজ করছি, বাংলাদেশের উন্নতির জন্যই কাজ করছি। এখানে আমার কোন স্বার্থ নাই।’

গণমাধ্যম সন্দেহপ্রবণ হয়ে পড়েছে কিনা, গণমাধ্যমের কারণে দেশের ক্রিকেট আটকে আছে কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন মাহমুদ।

‘মিডিয়াতে যেভাবে লেখা হয়। আমাদের ক্রিকেটের বড় অন্তরায় হচ্ছে…মিডিয়ারও একটা ব্যাপার আছে যে আমরা এত সন্দেহপ্রবণ হয়ে যাচ্ছি আসলে। এখন মিডিয়া সন্দেহপ্রবণ। মিডিয়ার কারণে আমাদের ক্রিকেট আটকায়ে আছে কিনা সেটাও কিন্তু প্রশ্ন।’

‘ক্রিকেট আমরা এতবছর ধরে খেলতেছি। এখন এত গালগপ্পো। মিডিয়াতে ভাল খারাপ সবই হবে। কিন্তু কিছু কিছু জিনিস নেতিবাচক হয়ে যাচ্ছি। ক্রিকেটের জন্য খুব কঠিন।’

চট্টগ্রাম টেস্টে ৫৩ বলে ৮ রান করে দলের ড্র করায় ভূমিকা রেখেছিলেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ঢাকায় তাকে না রেখে খেলানো হয় সাব্বির রহমানকে। টেস্ট চলাকালীন স্কোয়াডে থাকলেও তিন ক্রিকেটার মোসাদ্দেক, কামরুল ইসলাম ও নাঈম হাসানকে প্রিমিয়ার লিগ খেলার জন্য ছেড়ে দেওয়া হয়। কয়েকটি গণমাধ্যমে প্রশ্ন উঠে আবাহনীর হয়ে খেলানোর জন্যই কী ঢাকা টেস্টে রাখা হয়নি মোসাদ্দেককে।

এই প্রসঙ্গ টেনে এনে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালকসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা মাহমুদ এমন গুরুতর অভিযোগে আহতও হওয়ার কথা জানান।

‘টেকনিক্যাল হয়ত খারাপ হতে পারি। কিন্তু অন্য বিষয় নিয়ে যখন কথা বলে তখন এটা আমাকে খুবই আহত করে। আমি আবাহনীর হেড কোচ। আমি মোসাদ্দেককে খেলাই নাই এই কারণে যে আবাহনীতে খেলার জন্য। যখন ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট নিয়ে কথা বলে তখনই এটা খুবই আহত করে। আমি মনে করি না বাংলাদেশের থেকে আবাহনী বা অন্য কিছু আমাকে টাচ করতে পারে। জীবনেও ছুঁতে পারবে না, ছুঁতে পারেওনি।’

‘আমি তো গড না। আমি তো খালেদ মাহমুদ সুজন। আমি খুবই সামান্য একটা মানুষ। আমি মনে করি আমার সামর্থ্য কম। আমি এখানে দাঁড়িয়ে কাজ করেছি মানুষ স্বীকার করুক না করুক আমি এটা ভালোবাসি।’

Facebook Comments

আরো খবর

পবিত্র হজ পালন করছেন সাকিব... ক্রীড়া ডেস্ক :: আপাতত বাংলাদেশের কোন খেলা নেই। ওয়েস্ট ইন্ডিজের...
মেসির মুখোমুখি হতে মুখিয়ে তেভেস... ক্রীড়া ডেস্ক :: জুয়ান গাম্পের ট্রফিতে লিওনেল মেসির মুখোমুখি হত...
আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে ১ বছর দেখা যাবে না মেসিকে... ক্রীড়া ডেস্ক :: আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের হয়ে আগামী একবছর ন...
ইংল্যান্ডে ভরাডুবির শাস্ত্রীকে দিতেই হবে... ক্রীড়া ডেস্ক :: এজবাস্টন টেস্টে লড়েও হার এড়াতে পারেনি ভারত। আর...
ক্রোয়েশিয়াকে বিদায় বললেন মানজুকিচ... ক্রীড়া ডেস্ক :: ক্রোয়াশিয়ার জার্সিতে আর খেলবেন না জুভেন্টাস ফর...

ক্রীড়া ডেস্ক:: মাঠের বাইরের ইস্যুতে তাকে নিয়ে গণমাধ্যম ও সোশ্যাল মাধ্যমে কথা উঠায় ক্ষোভ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। ক্ষোভ ও আবেগ মিশ্রিত সুরে তিনি আর বাংলাদেশের ক্রিকেটের সঙ্গে কাজ করার অনাগ্রহের কথাও জানিয়েছেন।

প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে না থাকায় ত্রিদেশীয় ও শ্রীলঙ্কা সিরিজে টেকনিক্যাল ডিরেক্টরের আদলে দল পরিচালনার দায়িত্ব পান খালেদ মাহমুদ। ঘরের মাঠে ফেভারিট থেকেও ত্রিদেশীয় সিরিজে চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি বাংলাদেশ। হেরে যায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজও।

সোমবার টি-টোয়েন্টি দলের অনুশীলনের শুরুর দিন কথা বলতে এসে সব বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আবেগী হয়ে যান জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে দুই ইনিংসেই ব্যাটিং ধস নামে বাংলাদেশের। দুই ইনিংস মিলিয়েই দল খেলতে পারেনি ৮০ ওভারও। ত্রিদেশীয় কাপেও লঙ্কানদের বিপক্ষে একশো রানের নিচে অলআউট হয়েছিল। ফাইনালে ২২২ রান তাড়া করতেও জিততে পারেনি। সব মিলিয়ে ব্যর্থতার সিরিজের পর কি তিনি আর দায়িত্বে থাকবেন? এমন প্রশ্ন মাহমুদের জবাব, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি আর আগ্রহী না। আমার আসলে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গেই কাজ করতে ইচ্ছে করছে না। আমার আসলে নোংরা লাগছে সত্যি কথা বলতে গেলে। এতবছর বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে কাজ করছি, বাংলাদেশের উন্নতির জন্যই কাজ করছি। এখানে আমার কোন স্বার্থ নাই।’

গণমাধ্যম সন্দেহপ্রবণ হয়ে পড়েছে কিনা, গণমাধ্যমের কারণে দেশের ক্রিকেট আটকে আছে কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন মাহমুদ।

‘মিডিয়াতে যেভাবে লেখা হয়। আমাদের ক্রিকেটের বড় অন্তরায় হচ্ছে…মিডিয়ারও একটা ব্যাপার আছে যে আমরা এত সন্দেহপ্রবণ হয়ে যাচ্ছি আসলে। এখন মিডিয়া সন্দেহপ্রবণ। মিডিয়ার কারণে আমাদের ক্রিকেট আটকায়ে আছে কিনা সেটাও কিন্তু প্রশ্ন।’

‘ক্রিকেট আমরা এতবছর ধরে খেলতেছি। এখন এত গালগপ্পো। মিডিয়াতে ভাল খারাপ সবই হবে। কিন্তু কিছু কিছু জিনিস নেতিবাচক হয়ে যাচ্ছি। ক্রিকেটের জন্য খুব কঠিন।’

চট্টগ্রাম টেস্টে ৫৩ বলে ৮ রান করে দলের ড্র করায় ভূমিকা রেখেছিলেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ঢাকায় তাকে না রেখে খেলানো হয় সাব্বির রহমানকে। টেস্ট চলাকালীন স্কোয়াডে থাকলেও তিন ক্রিকেটার মোসাদ্দেক, কামরুল ইসলাম ও নাঈম হাসানকে প্রিমিয়ার লিগ খেলার জন্য ছেড়ে দেওয়া হয়। কয়েকটি গণমাধ্যমে প্রশ্ন উঠে আবাহনীর হয়ে খেলানোর জন্যই কী ঢাকা টেস্টে রাখা হয়নি মোসাদ্দেককে।

এই প্রসঙ্গ টেনে এনে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালকসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা মাহমুদ এমন গুরুতর অভিযোগে আহতও হওয়ার কথা জানান।

‘টেকনিক্যাল হয়ত খারাপ হতে পারি। কিন্তু অন্য বিষয় নিয়ে যখন কথা বলে তখন এটা আমাকে খুবই আহত করে। আমি আবাহনীর হেড কোচ। আমি মোসাদ্দেককে খেলাই নাই এই কারণে যে আবাহনীতে খেলার জন্য। যখন ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট নিয়ে কথা বলে তখনই এটা খুবই আহত করে। আমি মনে করি না বাংলাদেশের থেকে আবাহনী বা অন্য কিছু আমাকে টাচ করতে পারে। জীবনেও ছুঁতে পারবে না, ছুঁতে পারেওনি।’

‘আমি তো গড না। আমি তো খালেদ মাহমুদ সুজন। আমি খুবই সামান্য একটা মানুষ। আমি মনে করি আমার সামর্থ্য কম। আমি এখানে দাঁড়িয়ে কাজ করেছি মানুষ স্বীকার করুক না করুক আমি এটা ভালোবাসি।’

Facebook Comments

আরো খবর

পবিত্র হজ পালন করছেন সাকিব... ক্রীড়া ডেস্ক :: আপাতত বাংলাদেশের কোন খেলা নেই। ওয়েস্ট ইন্ডিজের...
মেসির মুখোমুখি হতে মুখিয়ে তেভেস... ক্রীড়া ডেস্ক :: জুয়ান গাম্পের ট্রফিতে লিওনেল মেসির মুখোমুখি হত...
আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে ১ বছর দেখা যাবে না মেসিকে... ক্রীড়া ডেস্ক :: আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের হয়ে আগামী একবছর ন...
ইংল্যান্ডে ভরাডুবির শাস্ত্রীকে দিতেই হবে... ক্রীড়া ডেস্ক :: এজবাস্টন টেস্টে লড়েও হার এড়াতে পারেনি ভারত। আর...
ক্রোয়েশিয়াকে বিদায় বললেন মানজুকিচ... ক্রীড়া ডেস্ক :: ক্রোয়াশিয়ার জার্সিতে আর খেলবেন না জুভেন্টাস ফর...