আজঃ ২৬শে অগ্রহায়ণ ১৪২৫ - ১০ই ডিসেম্বর ২০১৮ - রাত ২:৪৬

অস্তিস্থ রক্ষার্থে জমিয়ত সিলেটের ৬ আসনেই নির্বাচনে প্রস্তুত

Published: নভে ১৪, ২০১৮ - ৪:১৩ অপরাহ্ণ

২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ সিলেট জেলা ও মহানগর শাখার উদ্যোগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বর্ধিত সভা ১৪ নভেম্বর বুধবার দুপুরে বন্দর বাজারস্থ দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্টিত হয়

সিলেট মহানগর জমিয়তের সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও জেলা জমিয়তের যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা আব্দুল মালিক ক্বাসেমীর পরিচালনায় সভায় বক্তারা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার বিগত ১০ বছরে দেশের আলেম ওলামা সহ বিরোধী জোটের উপর যেভাবে জুলুম নির্যাতন করেছে আগামীতে সুষ্ঠ নির্বাচন হলে তাদের অস্তিস্থই খুজে পাওয়া যাবে না। বক্তারা বলেন, বিগত ৫ জানুয়ারির মতো দেশে আর কোন তামাশার নির্বাচন করতে দেবেনো।

জমিয়ত নেতৃবৃন্দ বলেন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ ২০ দলীয় জোটের অন্যতম একটি শরীক দল। সিলেটে ৬টি সংসদীয় এলাকায় আমাদের বিশাল ভোট রয়েছে। জোটের কাছে আমাদের দীর্ঘ দিনের দাবী সিলেট-৪ ও ৫ আসন আমাদেরকে ছাড় দিতে হবে। কারণ বিগত স্থানীয় নির্বাচনগুলোতে আমরা দলীয় প্রতীক নিয়ে অংশগ্রহণ করে যাচাই করেছি আমাদের বিপুল পরিমাণ ভোট রয়েছে। সিলেট-৪ ও ৫ আসন ক্বওমী মাদ্রাসা ও ধর্মপ্রাণ অধ্যুষিত এলাকা। দুইটি আসনেই জনসাধারন আলেম ওলামাদের পছন্দ করেন। এজন্য সিলেট ৪ আসনে মাওলানা আতাউর রহমান ও সিলেট-৫ আসনে মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক কে ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী দেওয়ার জন্য জোর দাবি জানান।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বিগত দিনে আমরা জোটের কাছ থেকে আমাদের ন্যায্য অধিকারটুকু পাইনী। এবার তার ব্যতিক্রম হলে সিলেটের ৬টি আসনে দলীয় প্রতীক খেজুর গাছ নিয়ে দলের অস্তিস্থ রক্ষার জন্য আমরা নির্বাচন করে যাবো। নেতৃবৃন্দ বলেন, অনেকেই লোভ লালসা পেয়ে ২০ দল থেকে বাহির হয়ে গেলেও জমিয়ত তার নীতি ও আদর্শের উপর এখনও অটল। সরকারের সকল অত্যাচার নির্যাতনের পরও আমরা এখনও ২০ দলীয় জোটের সাথে আছি। আমাদের দলের সভাপতি আল্লামা শায়খ আব্দুল মোমিন ও মহাসচিব আল্লামা নুর হোসাইন ক্বাসেমীর নেতৃত্বে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে যাচ্ছি।

বক্তব্য রাখেন জেলা জমিয়তের সহ সভাপতি মাওলানা আব্দুল মতিন নাদিয়া মাওলানা আসরারুল হক, আলহাজ্ব সামসুদ্দিন, সহ সাধারন সম্পাদক মাওলানা নজরুল ইসলাম, ছাত্র জমিয়তের কেন্দ্রীয় সভাপতি এম. সাইফুর রহমান, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা নুর আহমদ ক্বাসেমী, মহানগর জমিয়তের যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, সহ সাধারন সম্পাদক মাওলানা শফিউল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা সৈয়দ সলিম ক্বাসেমী, গোয়াইনঘাট উপজেলা জমিয়তের সভাপতি মাওলানা আব্দুল আজিজ, জেলা প্রচার সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, ওসমানীনগর উপজেলা সহ সভাপতি কাজী আমীন উদ্দিন, বিয়ানীবাজার উপজেলা সাধারন সম্পাদক হাফিজ আব্দুল খালিক ক্বাসেমী, জৈন্তাপুর উপজেলা সাধারন সম্পাদক মাওলানা কবির আহমদ, দক্ষিণ সুরমা সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আজির উদ্দিন, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা তাজ উদ্দিন, গোলাপগঞ্জ উপজেলা জমিয়তের যুগ্ম সম্পাদক হাফিজ আল আহমদ, জকিগঞ্জ উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ফারুক আহমদ, গোলাপগঞ্জ উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মুফতি মাহফুজ আহমদ, কানাইঘাট উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মুফতি এবাদুর রহমান, হেলাল আহমদ, যুব জমিয়তের কেন্দ্রীয় নেতা হাফিজ মাসউদ আযহার, মহানগর যুব জমিয়তের সভাপতি মাওলানা কবির আহমদ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আহাদ আল আতিক, মহানগর ছাত্র জমিয়তের সভাপতি মো. লুৎফুর রহমান, জেলা ছাত্র জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ ফয়েজ উদ্দিন, গিয়াস উদ্দিন, হাফিজ আব্দুল করিম দিলদার, মাওলানা আব্দুল কাদির জিলু, মাওলানা ফরহাদ কোরাইশী, যুবনেতা নজরুল ইসলাম, ইমরান হোসাইন চৌধুরী, ইয়াহিয়া হামিদী প্রমুখ। উল্লেখ্য, সিলেটের ৬টি সংসদীয় আসনের জন্য জমিয়ত মনোনীত প্রার্থীরা দলীয় ফরম ইতোমধ্যে সংগ্রহ করেছেন।

Facebook Comments

২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ সিলেট জেলা ও মহানগর শাখার উদ্যোগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বর্ধিত সভা ১৪ নভেম্বর বুধবার দুপুরে বন্দর বাজারস্থ দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্টিত হয়

সিলেট মহানগর জমিয়তের সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও জেলা জমিয়তের যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা আব্দুল মালিক ক্বাসেমীর পরিচালনায় সভায় বক্তারা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার বিগত ১০ বছরে দেশের আলেম ওলামা সহ বিরোধী জোটের উপর যেভাবে জুলুম নির্যাতন করেছে আগামীতে সুষ্ঠ নির্বাচন হলে তাদের অস্তিস্থই খুজে পাওয়া যাবে না। বক্তারা বলেন, বিগত ৫ জানুয়ারির মতো দেশে আর কোন তামাশার নির্বাচন করতে দেবেনো।

জমিয়ত নেতৃবৃন্দ বলেন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ ২০ দলীয় জোটের অন্যতম একটি শরীক দল। সিলেটে ৬টি সংসদীয় এলাকায় আমাদের বিশাল ভোট রয়েছে। জোটের কাছে আমাদের দীর্ঘ দিনের দাবী সিলেট-৪ ও ৫ আসন আমাদেরকে ছাড় দিতে হবে। কারণ বিগত স্থানীয় নির্বাচনগুলোতে আমরা দলীয় প্রতীক নিয়ে অংশগ্রহণ করে যাচাই করেছি আমাদের বিপুল পরিমাণ ভোট রয়েছে। সিলেট-৪ ও ৫ আসন ক্বওমী মাদ্রাসা ও ধর্মপ্রাণ অধ্যুষিত এলাকা। দুইটি আসনেই জনসাধারন আলেম ওলামাদের পছন্দ করেন। এজন্য সিলেট ৪ আসনে মাওলানা আতাউর রহমান ও সিলেট-৫ আসনে মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক কে ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী দেওয়ার জন্য জোর দাবি জানান।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বিগত দিনে আমরা জোটের কাছ থেকে আমাদের ন্যায্য অধিকারটুকু পাইনী। এবার তার ব্যতিক্রম হলে সিলেটের ৬টি আসনে দলীয় প্রতীক খেজুর গাছ নিয়ে দলের অস্তিস্থ রক্ষার জন্য আমরা নির্বাচন করে যাবো। নেতৃবৃন্দ বলেন, অনেকেই লোভ লালসা পেয়ে ২০ দল থেকে বাহির হয়ে গেলেও জমিয়ত তার নীতি ও আদর্শের উপর এখনও অটল। সরকারের সকল অত্যাচার নির্যাতনের পরও আমরা এখনও ২০ দলীয় জোটের সাথে আছি। আমাদের দলের সভাপতি আল্লামা শায়খ আব্দুল মোমিন ও মহাসচিব আল্লামা নুর হোসাইন ক্বাসেমীর নেতৃত্বে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে যাচ্ছি।

বক্তব্য রাখেন জেলা জমিয়তের সহ সভাপতি মাওলানা আব্দুল মতিন নাদিয়া মাওলানা আসরারুল হক, আলহাজ্ব সামসুদ্দিন, সহ সাধারন সম্পাদক মাওলানা নজরুল ইসলাম, ছাত্র জমিয়তের কেন্দ্রীয় সভাপতি এম. সাইফুর রহমান, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা নুর আহমদ ক্বাসেমী, মহানগর জমিয়তের যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, সহ সাধারন সম্পাদক মাওলানা শফিউল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা সৈয়দ সলিম ক্বাসেমী, গোয়াইনঘাট উপজেলা জমিয়তের সভাপতি মাওলানা আব্দুল আজিজ, জেলা প্রচার সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, ওসমানীনগর উপজেলা সহ সভাপতি কাজী আমীন উদ্দিন, বিয়ানীবাজার উপজেলা সাধারন সম্পাদক হাফিজ আব্দুল খালিক ক্বাসেমী, জৈন্তাপুর উপজেলা সাধারন সম্পাদক মাওলানা কবির আহমদ, দক্ষিণ সুরমা সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আজির উদ্দিন, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা তাজ উদ্দিন, গোলাপগঞ্জ উপজেলা জমিয়তের যুগ্ম সম্পাদক হাফিজ আল আহমদ, জকিগঞ্জ উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ফারুক আহমদ, গোলাপগঞ্জ উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মুফতি মাহফুজ আহমদ, কানাইঘাট উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মুফতি এবাদুর রহমান, হেলাল আহমদ, যুব জমিয়তের কেন্দ্রীয় নেতা হাফিজ মাসউদ আযহার, মহানগর যুব জমিয়তের সভাপতি মাওলানা কবির আহমদ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আহাদ আল আতিক, মহানগর ছাত্র জমিয়তের সভাপতি মো. লুৎফুর রহমান, জেলা ছাত্র জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ ফয়েজ উদ্দিন, গিয়াস উদ্দিন, হাফিজ আব্দুল করিম দিলদার, মাওলানা আব্দুল কাদির জিলু, মাওলানা ফরহাদ কোরাইশী, যুবনেতা নজরুল ইসলাম, ইমরান হোসাইন চৌধুরী, ইয়াহিয়া হামিদী প্রমুখ। উল্লেখ্য, সিলেটের ৬টি সংসদীয় আসনের জন্য জমিয়ত মনোনীত প্রার্থীরা দলীয় ফরম ইতোমধ্যে সংগ্রহ করেছেন।

Facebook Comments

এ জাতীয় আরো খবর